শেষ টেষ্টে দল থেকে বাদ পরলেন মিঠুন ও সৌম্য, ফিরছেন মুশফিক

স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার পর টেস্ট সিরিজেও প্রথম দুই ম্যাচে মিলেছে ইনিংস ব্যবধানের। বাকী এক টেস্ট।

এদিকে ইনজুরির কারণে টেস্ট সিরিজে এখনো মাঠে নামা হয়নি দেশের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহীমের। তবে ধারণা করা হচ্ছে আগামী শুক্রবার থেকে শুরু হতে যাওয়া ক্রাইস্টচার্চ টেস্টের একাদশে ফিরতে যাচ্ছেন তিনি।

সেই ইঙ্গিতই দিয়েছে ক্রিকেট দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। তিনি জানিয়েছেন আজ নিউজিল্যান্ডের স্থানীয় সময় বিকেলের পর ক্রাইস্টচার্চ পৌঁছেছে টাইগাররা। তাই এখনই চূড়ান্ত কিছু জানানো সম্ভব নয়।

নান্নু বলেন, ‘বাংলাদেশ দল আজ আমাদের সময় বেলা ১২টায় (নিউজিল্যান্ডের স্থানীয় সময় বিকেল ৫টা) ক্রাইস্টচার্চের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করে। আজকে টিম সেখানে গিয়ে গুছিয়ে নেয়ার পর বিস্তারিত জানা যাবে। তবে এখনো পর্যন্ত যতদূর জানি মুশফিকের খেলার সম্ভাবনা উজ্জ্বল। তবু ক্রাইস্টচার্চে অনুশীলনের পর সঠিক তথ্য পাওয়া যাবে।’

যদি মুশফিক খেলেন, ওয়েলিংটন টেস্টের একাদশে থাকা একজনকে তো বাদ পড়তেই হবে। সে কে? এমন প্রশ্নের জবাবে নান্নুর ব্যাখ্যা, ‘যেহেতু মুশফিক ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলবে তাই তাকে দলে নিতে একজন ব্যাটসম্যানকেই বাদ দিতে হবে। সেক্ষেত্রে মোহাম্মদ মিঠুন বা সৌম্য সরকারকে বাদ পড়তে হবে।’

ব্যাটসম্যানের তালিকায় তো লিটন দাসও আছেন, যার ব্যাট কথা বলছে না। তার নাম এলো না কেন বাদ পড়ার তালিকায়? যেখানে সৌম্য সেঞ্চুরি করেছেন? নান্নুর পরবর্তী কথায় বোঝা যায় লিটনের কিপিংটাই তারা আলোচনায় এগিয়ে রেখেছেন। তাই ব্যাট হাতে ব্যর্থ হলেও লিটনের বাদ পড়ার সম্ভাবনা কম। ফলে প্রথম ম্যাচে সেঞ্চুরি করেও সৌম্যর নাম চলে এসেছে আলোচনায়।

তবে সৌম্যের চেয়ে মিঠুনের বাদ পড়ার সম্ভাবনাই বেশি। প্রধান নির্বাচকের কথায় টের পাওয়া গিয়েছে ডানহাতি মিঠুনের ব্যাটিং অ্যাপ্রোচও মনঃপুত হয়নি তাদের। ফলে শেষ টেস্টে হয়তো মোহাম্মদ মিঠুনের জায়গাতেই দেখা যাবে দেশের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহীমকে।

পাঠকের মতামত