ভবিষ্যতের অধিনায়ক কিনেছে লিভারপুল!

প্রকাশিত: ফেব্রু ৩, ২০২১ / ০৩:৪৪অপরাহ্ণ
ভবিষ্যতের অধিনায়ক কিনেছে লিভারপুল!

জানুয়ারির শীতকালীন দলবদলের হাট ভাঙার ঠিক আগে তরুণ দুই ডিফেন্ডার কিনেছেন লিভারপুল বস জার্গেন ক্লপ। এদের একজন ২০ বছরের তুর্কি সেন্ট্রাল ডিফেন্ডার ওজান কাবাক। অন্যজন প্রিস্টনের বেন ডেভিস। এদের মধ্যে জার্মান ক্লাব শালকে থেকে ধারে দলে আনা কাবাককে ভবিষ্যত অধিনায়ক আখ্যা দিয়েছেন অলরেডস কোচ জার্গেন ক্লপ।

গত মৌসুমের লিগ চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল চলতি মৌসুমেও দারুণ শুরু করেছিল। কিন্তু পয়েন্ট টেবিলে নিচে নেমে গেছে তারা। ডিফেন্ডার ভ্যান ডাইক, জো গোমেজ ইনজুরি নিয়ে মাঠের বাইরে আছেন। জোয়েল মাতিপের মৌসুম ইনজুরিতে শেষ হয়ে গেছে। ওদিকে ডিফেন্সিভ মিডফিল্ড থেকে ফুল ব্যাক ও সেন্ট্রাল ব্যাকে অবদান রাখা ফ্যাবিনহোও পুরোপুরি ফিট নন।

ডিফেন্ডারদের এই ইনজুরির কারণে ক্রমাগত পয়েন্ট হারিয়ে চাপে পড়ে গেছে রেডস বস ক্লপ। তিনি তাই দলে ভিড়িয়েছেন তরুণ দুই ডিফেন্ডার। এদের মধ্যে কাবাককে লম্বা দৌড়ের ঘোড়া মনে করা হচ্ছে। ফিফার তরুণ প্রতিভার তালিকায়ও ওপরের দিকে আছে তার নাম। তরুণ এই ডিফেন্ডার দ্রুতই লিভারপুলে নিজের জাত চেনানোর সুযোগও পেয়ে যাবেন।

কাবাককে দলে আনতে পেরে খুশি ক্লপ বলেন, ‘খুব কম বয়সে কাবাক জার্মানিতে আসে। সবাই জানে, সে দারুণ এক প্রতিভা। তার বয়স মাত্র ২০ বছর। শালকেতে ভালো খেলছিল। কিন্তু তাদের একটু খারাপ সময় যাচ্ছে এখন। তার জন্য এখন তাই ক্লাব পরিবর্তন খুবই ভালো সিদ্ধান্ত হয়েছে। কারণ সকলেরই নিয়মিত ভালো করা একটা দল দরকার। এখানে সে সেটা পাবে এবং নিজেকে উজাড় করে দিতে পারবে।’

ক্লপ বলেন, ‘ডেভ এরই মধ্যে বলেছে, কাবাক ভবিষ্যত অধিনায়ক। তার ব্যক্তিত্ব দারুণ। সে চাইলে তুর্কির যে কোন ক্লাবে খেলতে পারতো। তবে তার জন্য দরকার ছিল এক ধাপ ওপরে ওঠা। সেই সুযোগটা কাবাক পেয়ে গেছে। সে অনেককিছু শিখতে চায়। এর সঙ্গেই অবশ্য মাঠে সে পারফরম্যান্স দেখাচ্ছে।’

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন