মেয়ে হওয়ায় নবজাতককে হাসপাতালে ফে’লে পা’লা’লে’ন মা-বাবা

প্রকাশিত: জানু ৩০, ২০২১ / ১২:০৬পূর্বাহ্ণ
মেয়ে হওয়ায় নবজাতককে হাসপাতালে ফে’লে পা’লা’লে’ন মা-বাবা

রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেয়ে শিশু জন্ম নেয়ায় নবজাতককে ফে’লে পা’লি’য়ে গেছেন তার মা-বাবা। দুই মেয়ের পর এবার ছেলে সন্তানের আশায় বুক বেঁধেছিলেন এ দম্পতি।

মেয়ে শিশুটি পৃথিবীর আলো দেখার পরই বাবা-মায়ের চোখে-মুখে হ’তা’শা নেমে আসে। পরে শিশুটিকে ফেলে রাতের আঁধারে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ত্যা’গ করেন তারা।

বৃহস্পতিবার ফেলে যাওয়া শিশুটিকে হাসপাতালের পরিচ্ছন্নতাকর্মী জোবেদা বেগম তার বাড়িতে নিয়ে যান। জোবেদার বোন মোমেনা নবজাতককে মায়ের আদরে বড় করে তুলছেন।

জানা গেছে, দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার পলাশবাড়ী ইউপির ধোবাকল গ্রামের ঝালমুড়ি বিক্রেতা প্রদীপ বিশ্বাস তার সন্তানসম্ভবা স্ত্রী পল্লবীকে বুধবার বদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। রাতে সন্তান জন্ম দেন পল্লবী।

মেয়ে সন্তান হওয়ায় তারা খুশি হতে পা’রেননি। তাদের ঘরে পপি ও দীপা নামে আরও দুটি মেয়ে আছে। অভাবের সংসারে তিন মেয়ের ভরণ-পোষণ করা নিয়ে দু’শ্চি’ন্তা’গ্র’স্ত হয়ে প’ড়েন তারা। পরে মধ্য রাতে পা’লি’য়ে যান প্রদীপ ও পল্লবী। বৃহস্পতিবার সকালে বিষয়টি জানাজানি হয়।

বদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. নাজমুল হোসাইন বলেন, আইনি প্রক্রিয়া ছাড়া দত্তক দেয়া যায় না। আমরা শিশুটিকে তার মা-বাবার কাছে ফেরত দেয়ার চে’ষ্টা করছি।

বদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আরশাদ হোসেন বলেন, বৃহস্পতিবার সকালের দিকে দেখা যায়, হাসপাতালে শিশুটির মা-বাবা নেই।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন