দায়িত্ব নেওয়ার আগেই নিজ হাতে পোস্টার অ’প’সারণ মেয়র রেজাউলের

প্রকাশিত: জানু ৩০, ২০২১ / ১২:০৩পূর্বাহ্ণ
দায়িত্ব নেওয়ার আগেই নিজ হাতে পোস্টার অ’প’সারণ মেয়র রেজাউলের

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) নবনির্বাচিত মেয়র এম রেজাউল করিম চৌধুরী। বিজয়ী হওয়ার পরদিন ঘোষণা দিয়েছিলেন প্রথমেই তিনি নগরীকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করার কাজে হাত দেবেন। সেই কথা রেখেছেন তিনি।

আনুষ্ঠানিক দায়িত্ব নেওয়ার আগেই নিজ হাতে নির্বাচনি পোস্টার অ’প’সা’রণের কাজ শুরু করেছেন তিনি।

শুক্রবার সকালে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে নগরীর বহদ্দারহাট, চান্দগাঁও থানা ও খাজা রোড এলাকায় লাগানো নির্বাচনি পোস্টার অ’প’সা’রণ করেন এম রেজাউল করিম চৌধুরী। তিনি নগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বেও রয়েছেন।

বুধবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেনকে তিন লাখেরও বেশি ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে ৫ বছরের জন্য চসিকের মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন রেজাউল করিম চৌধুরী। ৬ ফেব্রুয়ারি শেষ হচ্ছে চসিকের নিয়োগকৃত প্রশাসকের মেয়াদ। এরপর যে কোনো দিন আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব পাবেন তিনি।

ভোটে জয়ী হওয়ার পর থেকেই রেজাউলের বাসায় ভিড় করছেন দলীয় নেতাকর্মী ও উৎসুক জনতা। আগের দিনের মতো শুক্রবার সকালেও অসংখ্য নেতাকর্মী বাসভবনে নতুন মেয়রের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে যান। জানান অভিনন্দন। তাদেরকে নিয়েই রেজাউল করিম চৌধুরী আশপাশের এলাকায় পোস্টার অ’প’সা’রণের কাজে নেমে পড়েন।

বাঁশের কঞ্চি হাতে মাথার উপর থেকে পোস্টার নামিয়ে নিজেই অপসারণ কাজ শুরু করেন এরপর উপস্থিত নেতাকর্মীরা তার সঙ্গে কাজে হাত দিলে কিছুক্ষণের মধ্যেই পোস্টারশূন্য হয়ে যায় ওই এলাকা।

পোস্টার অপসারণ কাজের উদ্বোধন শেষে উপস্থিত নেতাকর্মী ও গণমাধ্যম কর্মীদের রেজাউল করিম বলেন, নাগরিক দায়িত্ববোধ থেকেই আমি এ কাজ করছি। আমার শহর আমার অহংকার- এ ভাবনা মাথায় রেখে নগরীর সব নাগরিকের উচিত নিজের শহরের সৌন্দর্য ও পরিচ্ছন্নতা রক্ষায় সচেতন ভ‚মিকা রাখা। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে গিয়ে প্রচারণার স্বার্থে আমরাই পোস্টারগুলো লাগিয়েছি। পোস্টারের মাধ্যমে মানুষের ভোট ও দোয়া প্রার্থনা করেছি। এখন নগরীর সৌন্দর্য ও নগরবাসীর স্বার্থেই আমাদের উচিত নিজেদের উদ্যোগে নেতাকর্মী সমর্থকদের নিয়ে এসব পোস্টার নামিয়ে ফেলা। তিনি পোস্টার ছিঁড়ে যত্রতত্র না ফেলার অনুরোধও জানান।

নতুন মেয়র বলেন, দুদিনের মধ্যে নগরীর স্বাভাবিক সৌন্দর্য ফিরিয়ে আনতে হবে। পোস্টারের কারণে যানবাহন চলাচল বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সংশ্লিষ্ট বিভাগ নামিয়ে ফেলা নির্বাচনি পোস্টার ও ব্যানার যথাযথ স্থানে ডাম্পিংয়ে উদ্যোগী হবেন বলে আশা করছি।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে তার সঙ্গে ছিলেন নবনির্বাচিত মহিলা কাউন্সিলর শাহীন আক্তার রোজী, ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী রাশেদ আলী জাহাঙ্গীর, সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহিম, ৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক নুর মোহাম্মদ নুরু, যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট আইয়ুব খান, ৭নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন বাবুল, সাধারণ সম্পাদক এমএ আজিজ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন প্রমুখ।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন