মা’র খেয়ে আ’হ’ত পুলিশ কর্মকর্তা, পা’লা’লেন কনস্টেবল

প্রকাশিত: জানু ২৯, ২০২১ / ১১:১৬অপরাহ্ণ
মা’র খেয়ে আ’হ’ত পুলিশ কর্মকর্তা, পা’লা’লেন কনস্টেবল

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের চান্দনা চৌরাস্তা এলাকায় ওয়ারেন্টভুক্ত আ’সা’মি গ্রে’ফ’তা’রের সময় পুলিশের এক এএসআইয়ের ও’প’র হা’ম’লা’র ঘটনা ঘটেছে। এতে গু’রুতর আ’হ’ত হন তিনি। এ সময় তার সঙ্গে থাকা কনস্টেবল আ’ত্ম’র’ক্ষা’র্থে পা’লি’য়ে যান।

মেট্রোপলিটন বাসন থানার এসআই আলামিন বাদী হয়ে ১০ জনের নাম উল্লেখ করে মা’ম’লা দায়ের করেন। এ ঘটনায় ছয়জনকে গ্রে’ফ’তা’র করা হয়েছে।

শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে ওই এলাকার ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে ঊনিশে টাওয়ারের কাছে এ ঘটনা ঘটে। পরে সন্ধ্যা ৭টার দিকে আ’সা’মি’দের গ্রে’ফ’তা’র করা হয়।

গ্রে’ফ’তা’র’কৃ’ত’রা হলেন- গাজীপুর সিটি করপোরেশনের দীঘিরচালা এলাকার মিজানুর রহমানের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩০), একই এলাকার আমিনুল হকের ছেলে তুষার (৩০), আউটপাড়া এলাকার সাফিজ উদ্দিনের ছেলে ইসরাফিল (৩০), কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী এলাকার আব্দুল মোজামের ছেলে ফরিদ মিয়া (২৫), এলাকার মোক্তার উদ্দিনের ছেলে আলাউদ্দিন (২৮), মাদারীপুর শিবচরের জাহাঙ্গীর হোসেনের ছেলে মিলন হোসেন (২৯)।

বাসন থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বাসন থানায় কর্মরত এএসআই আব্দুর রহিম সংবাদ পান ওয়ারেন্টভুক্ত এক আ’সা’মি ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে ঊনিশে টাওয়ারের কাছে সিয়াম বাসের টিকিট কাউন্টারের কাছে অবস্থান করছেন। এমন গো’প’ন সংবাদের ভিত্তিতে কনস্টেবল তৈবুর রহমানকে সঙ্গে নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তাকে গ্রে’ফ’তা’রে’র চেষ্টা চালান।

এ সময় ওই স্থানে উপস্থিত চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা পুলিশের এএসআই আব্দুর রহিমের ওপর হা’ম’লা চালায়। এতে তিনি মাথায় গু’রু’তর আ’ঘা’ত’প্রা’প্ত হন। ঘটনার সময় সঙ্গে থাকা কনস্টেবল আ’ত্ম’র’ক্ষা’র্থে দৌড়ে অন্যত্র পা’লিয়ে যান। একপর্যায়ে স’ন্ত্রা’সী’রা পালিয়ে গেলে পুলিশ অফিসারকে আ’হ’ত অবস্থায় উ’দ্ধার করা হয়।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন বাসন থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) শেখ মিজানুর রহমান জানান, আব্দুর রহিমকে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার মাথায় ১৮টি সেলাই দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় হা’ম’লা’কা’রী মা’দ’ক ব্যবসায়ীদের মধ্যে ছয়জনকে গ্রে’ফ’তা’র করা হয়েছে। হা’ম’লা’কা’রী’রা এলাকার চিহ্নিত স’ন্ত্রা’সী। তাদের বি’রু’দ্ধে থানায় একাধিক মা’ম’লা রয়েছে। এ বিষয়ে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন আছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন