ইন্দোনেশিয়ায় ইরান ও পানামার তেলট্যাংকার জ’ব্দ

প্রকাশিত: জানু ২৬, ২০২১ / ১২:২০পূর্বাহ্ণ
ইন্দোনেশিয়ায় ইরান ও পানামার তেলট্যাংকার জ’ব্দ

ইন্দোনেশিয়ার উপকূলরক্ষীরা ইরানি পতাকাবাহী এমটি হর্স ও পানামার পতাকাবাহী এমটি ফ্রেয়া নামের দুটি জাহাজ জ’ব্দ করেছে। দেশটির জলসীমা দিয়ে অ’বৈ’ধ’ভা’বে তেল সরবরাহের অ’ভি’যো’গ এনে জাহাজ দুটি জব্দ করেছে তারা। ইন্দোনেশিয়ার বোর্নিও দ্বীপের কালিমান্তানে জাহাজ দুটি গতকাল রবিবার শ’না’ক্ত করা হয়। পরে রেডিওকলে সাড়া না দেওয়ায় জাহাজ দুটি জ’ব্দ করা হয়েছে।

এক বিবৃতিতে ইন্দো কোস্টগার্ডের মুখপাত্র বিষ্ণু প্রামাণদিতা জানান, কালিমান্তান প্রদেশের উপকূল থেকে ট্যাংকার দুটি আ’ট’ক করার পর আরো তদন্তের জন্য এগুলোকে পাহারা দিয়ে রিয়াউ প্রদেশের বাটাম দ্বীপে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। স্থানীয় সময় ভোর সাড়ে ৫টায় ট্যাংকার দুটি শনাক্ত হয়।

জাতীয় পতাকা প্রদর্শন না করে, স্বয়ংক্রিয় শনাক্তকরণ পদ্ধতি বন্ধ রেখে ও রেডিওকলে সাড়া না দিয়ে তারা তাদের পরিচয় গো’প’ন করে রেখেছিল। জাহাজ দুটি এমটি হর্স থেকে এমটি ফ্রেইয়ায় তেল স্থানান্তরিত করার সময় হাতে নাতে ধ’রা পড়ে। এ ছাড়া এমটি ফ্রেয়ার জাহাজটির চারপাশে তেল ছ’ড়িয়ে পড়ছিল। এ সময় জাহাজে থাকা ৬১ জন ক্রুকেও আ’ট’ক করা হয়েছে বলে জানান বিষ্ণু।

এদিকে জাহাজ আ’ট’কের এ ঘটনা নিয়ে ইরান কোনো মন্তব্য করেনি। দেশটির বি’রু’দ্ধে অ’ভি’যো’গ, তারা তাদের বিক্রয় করা তেলের গন্তব্য গো’প’ন করতে নিজেদের ট্যাংকারগুলোর ট্র্যাকিং সিস্টেম অকার্যকর করে রাখে। এতে করে তেহরান কী পরিমাণ অ’পরিশোধিত তেল রপ্তানি করছে তার হিসাব বের করা ক’ঠিন হয়ে পড়ে।

সূত্র: রয়টার্স।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন