কাল দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ

প্রকাশিত: জানু ২১, ২০২১ / ০৮:০৫অপরাহ্ণ
কাল দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে জিতে দারুণ সূচনা করেছে বাংলাদেশ। আগামীকাল শুক্রবার সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ সময় বেলা সাড়ে ১১টায় মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে।

এরই মধ্যে প্রথম ওয়ানডে ম্যাচ জিতে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০তে এগিয়ে গেছে বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ওয়ানডে জিতলেই সিরিজ নিশ্চিত হবে টাইগারদের।

সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে ২৫ জানুয়ারি চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত হবে। এর আগে বুধবার প্রায় ১০ মাস পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

এ ছাড়া দলের অন্যতম তারকা সাকিব আল হাসানও আইসিসির নিষেধাজ্ঞা শেষে এই ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরেন।

ওয়ানডে দলের অধিনায়ক হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে নেতৃত্ব দেওয়া শুরু করেন ওপেনার তামিম ইকবাল। ম্যাচে টস জিতে ক্যারিবীয়দের ব্যাটিংয়ে পাঠান তিনি।

অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ও অভিষেক হওয়া হাসান মাহমুদের বোলিং তোপে ৩২.২ ওভারে মাত্র ১২২ রানে অলআউট হয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

রাজকীয় প্রত্যাবর্তন হয়েছে সাকিবের। অন্যদিকে অভিষেকেই নিজের জাত চিনিয়েছেন তরুণ তুর্কী হাসান মাহমুদ। সাকিব ৭.২ ওভারে আট রান খরচায় তুলে নেন চার উইকেট। হাসান মাহমুদ ছয় ওভারে ২৮ রান দিয়ে তিনটি ও মুস্তাফিজ ছয় ওভারে ২০ রান দিয়ে দুটি উইকেট পান।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ শিবিরে প্রথমেই আঘাত হানেন মুস্তাফিজ। ৩.৩ ওভারে ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্কোর যখন ১৫, তখনই মিরপুরে মাঠে বৃষ্টি শুরু হয়। বৃষ্টির কারণে খেলা এক ঘণ্টা বন্ধ থাকে।

বৃষ্টির পর মুস্তাফিজ, সাকিব ও হাসানের বোলিংতোপে ধুঁকতে থাকা সফরকারীরা কোনোমতে শতক পার করে। হ্যাটট্রিকের সম্ভবনাও জাগান হাসান। টাইগারদের হয়ে অন্য উইকেটটি পান মিরাজ।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪০ রান আসে কাইল মায়ার্সের ব্যাট থেকে। ১২৩ রানের মামুলি লক্ষ্যে ছয় উইকেট হাতে রেখেই ছুঁয়ে ফেলে টাইগাররা। খরচ করেছে ৩৩.৫ ওভার।

লাল-সবুজের দলের হয়ে অধিনায়ক তামিম ইকবাল সর্বোচ্চ ৪৪ রান করেন। তাঁর ইনিংসে ছিল সাতটি চারের মার। সে সঙ্গে লিটন দাস ১৪, সাকিব আল হাসান ১৯, মুশফিকুর রহিম ১৯ (অপরাজিত), মাহমুদউল্লাহ ৯ (অপরাজিত) ও নাজমুল হোসেন শান্ত এক রান করেন। অতিরিক্ত খাত থেকে আসে ১৯ রান।

সফরকারীদের পক্ষে আকিল হোসেন তিনটি এবং জেসন মোহাম্মদ একটি উইকেট পান। ম্যাচসেরার পুরস্কার পান সাকিব আল হাসান।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন