বাইডেন-কমলা ক্যাপিটল হিলে পৌঁছেছেন

প্রকাশিত: জানু ২০, ২০২১ / ১০:৪০অপরাহ্ণ
বাইডেন-কমলা ক্যাপিটল হিলে পৌঁছেছেন

শপথগ্রহণের জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল হিলে পৌঁছেছেন নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তাঁর সঙ্গে ক্যাপিটলে পৌঁছেছেন নবনির্বাচিত ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসও। খবর সিএনএনের।

শপথ নেওয়ার আগে বাইডেনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন বারাক ওবামা। এক টুইট বার্তায় তিনি লেখেন, ‘অভিনন্দন আমার বন্ধু প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে। এখন সময় আপনার।’

প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেওয়ার আগে একটি টুইট করেছেন জো বাইডেনও। টুইটে আজকের দিনটিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নতুন দিন বলে অভিহিত করেছেন।

এদিকে, বিদায়ী বক্তব্যে জো বাইডেন প্রশাসনের সফলতা কামনা করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ডোনাল্ড ট্রাম্প আগেই জানিয়েছিলেন, তিনি জো বাইডেনের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন না। তবে হোয়াইট হাউসের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, ট্রাম্প জো বাইডেনকে লেখা একটি চিঠি রেখে গেছেন।

বাইডেনের অভিষেক উপলক্ষে ওয়াশিংটন ডিসিসহ প্রতিটি শহরেই এবার নেওয়া হয়েছে নজিরবিহীন নিরাপত্তা ব্যবস্থা। তবে নভেল করোনাভাইরাসের প্রকোপের কারণে নেই গণজমায়েতের সুযোগ।

ঘরে বসেই নতুন প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেওয়ার আনুষ্ঠানিকতা দেখতে হবে মার্কিনিদের। বাইডেনের অভিষেক উপলক্ষে ওয়াশিংটন ডিসির ন্যাশনাল মলের পুরো চত্বর মুড়ে দেওয়া হয় এক লাখ ৯১ হাজার ৫০০ পতাকা দিয়ে। যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গরাজ্য ও টেরিটরির নির্দেশক ৫৬টি পিলারে করা হয় মনোমুগ্ধকর আলোকসজ্জা।

ওয়াশিংটন ডিসিতে বাইডেনের শপথ উপলক্ষে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তায় কাজ করেছে ২৫ হাজার সেনাসদস্য। সঙ্গে আছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যও।

নিরাপত্তা ব্যবস্থার এত কড়াকড়ি থাকলেও বাইডেনের শপথে ওয়াশিংটন ডিসি থাকবে জনমানবশূন্য। যদিও অভ্যন্তরীণ হুমকির কোনো ইঙ্গিত নেই বলে জানিয়েছেন দেশটির অস্থায়ী প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস্টোফার মিলার।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন