পুরো সীমান্তেই কাঁটাতারের বেড়া দিতে চায় ভারত

ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর সঙ্গে বৈঠকের পর দেশে ফিরে গতকাল বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বিবিসিকে বলেছেন, ভারত সীমান্তের পুরোটাতেই কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণ করতে চায়। জবাবে, তিনি ভারতের মন্ত্রীকে বলেছেন, আইন অনুযায়ী করা হলে তাতে বাংলাদেশের আপত্তি করার কিছু নেই। আমরা বলেছি জয়েন্ট বাউন্ডারি অ্যাক্ট অনুযায়ী আগে তারা যেভাবে করেছে সেভাবে বাকিটা করলে আমাদের অসুবিধা নেই। অমিত শাহর সঙ্গে তার আর কী কী বিষয়ে কথা হয়েছে- এই প্রশ্নে আসাদুজ্জামান খান বলেন, ভারত বাংলাদেশিদের অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগ তুলে তা ঠেকাতে সীমান্তে বাংলাদেশকে ব্যবস্থা নিতে বলেছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, তিনি ভারতকে জানিয়েছেন যে বাংলাদেশ থেকে সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে কোনো বাংলাদেশি ভারতে যায় না। বাংলাদেশের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, দিল্লির বৈঠকে এসব আলোচনা হলেও অনুপ্রবেশ ইস্যুতে কোনো ঐকমত্য না হওয়ায় কোনো যৌথ বিবৃতি দেওয়া হয়নি। দুই দেশ আলাদা আলাদাভাবে বক্তব্য তুলে ধরেছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিবিসিকে বলেছেন, সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে বাংলাদেশের কোনো নাগরিক ভারতে যায় না এটাই তিনি ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, আমি তাদের বলেছি, আমাদের দেশ থেকে এখন আর অবৈধভাবে কেউ যায় না। ভিসা নিয়েই যায়। অবৈধভাবে যাওয়ার কোনো প্রশ্ন আসে না কারণ আমাদের দেশে মাথাপিছু আয় বেড়েছে। প্রবৃদ্ধি বেড়েছে। ভারতের দেওয়া হিসাব অনুযাযী, গত বছর ২৩ লাখ লোক বৈধভাবে গেছে। মন্ত্রী বলেন, তারাই স্বীকার করলেন, গত বছর নাকি আমাদের ১৪ লাখ লোককে তারা ভিসা দিয়েছেন। মাল্টিপল ভিসা দেওয়া ছিল। সব মিলিয়ে ২৩ লাখ বাংলাদেশের নাগরিক গত বছর ভারত গিয়েছিল।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত