রেফারিকে তা’ড়া করে নি’ষি’দ্ধ আবাহনীর সোহেল-টুটুলরা

প্রকাশিত: জানু ১৩, ২০২১ / ১১:৪২অপরাহ্ণ
রেফারিকে তা’ড়া করে নি’ষি’দ্ধ আবাহনীর সোহেল-টুটুলরা

সদ্যশেষ হওয়া ফেডারেশন কাপের সেমিফাইনালে সিদ্ধান্ত মনের মতো না হওয়ায় রেফারির দিকে তে’ড়ে যান আবাহনীর ফুটবলার সোহেল রানা, টুটুল হোসেন ও সাদ উদ্দিনরা।

ফেডারেশন কাপে ঘটে যাওয়া এমনসব অ’না’কা’ঙ্খি’ত ঘটনায় দা’য়ীদের নি’ষি’দ্ধ এবং জ’রি’মা’না করেছে বাফুফের শৃ’ঙ্খ’লা কমিটি।

গত ৭ জানুয়ারি বসুন্ধরা-আবাহনী সেমিফাইনালের ঘটনায় আবাহনীর সোহেল রানাকে এক ম্যাচ নি’ষি’দ্ধ এবং ৭৫ হাজার টাকা, টুটুল হোসেন বাদশাকে এক ম্যাচ নি’ষি’দ্ধ ও ৫০ হাজার টাকা, সাদ উদ্দিনকে ২৫ হাজার টাকা, ফিটনেস ট্রেইনার কাজী নজরুল ইসলামকে ২৫ হাজার টাকা জ’রি’মা’না করা হয়।

ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে না যাওয়ায় আবাহনীর কোচ মারিও লেমোসকেও ২৫ হাজার টাকা জ’রি’মা’না করা হয়। শেখ রাসেল ও চট্টগ্রাম আবাহনীর ম্যাচে অখেলোয়াড় সুলভ আ’চরণ করায় শেখ রাসেলের তকলিচ আহমেদকে দুই ম্যাচের জন্য নি’ষি’দ্ধ করা হয়েছে।

সাইফ স্পোর্টিংয়ের বি’প’ক্ষে ম্যাচে মোহামেডান সমর্থকদের মাঠে প্রবেশ ও রেফারিকে গা’লি’গা’লা’জ এবং প্রা’ণ’না’শে’র হু’মকি দেয়ায় শৃ’ঙ্খ’লা কমিটি ক্লাবকে পাঁচ হাজার টাকা জ’রি’মা’না করেছে। এছাড়া আরও কয়েকটি ক্লাবের খেলোয়াড়, কর্মকর্তা ও বলবয়কে জ’রি’মা’না’সহ নি’ষি’দ্ধ করা হয়।

জ’রি’মা’না’র অর্থ ১০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) তহবিলে জমা দিতে বলা হয়েছে। অর্থদন্ড থেকে বাফুফের তহবিলে জমা হবে দুই লাখ ৮৮ হাজার টাকা।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন