ইউক্রেনের বিধ্বস্ত বিমানযাত্রীর পরিবারকে দেড় লাখ ডলার দেবে ইরান

প্রকাশিত: ডিসে ৩১, ২০২০ / ১১:২৮পূর্বাহ্ণ
ইউক্রেনের বিধ্বস্ত বিমানযাত্রীর পরিবারকে দেড় লাখ ডলার দেবে ইরান

এ বছরের জানুয়ারিতে তেহরান বিমানবন্দরের কাছে বিধ্বস্ত ইউক্রেনের বিমানযাত্রীদের প্রতি পরিবারকে দেড় লাখ ডলার ক্ষতিপূরণ দেবে ইরান।

দেশটির পার্লামেন্ট বুধবার ক্ষতিপূরণের এ অর্থ ছাড়ে অনুমোদন দিয়েছে। নিহত ১৭৬ বিমানযাত্রীর প্রত্যেকের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে দেড় লাখ মার্কিন ডলার বা সমমূল্যের ইউরো দেবে ইরান সরকার।

আগামী ৮ জানুয়ারি বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার বর্ষপূর্তির আগেই ক্ষতিপূরণের অর্থ ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে পৌঁছে দিতে চায় ইরান।

এ বছরের ৮ জানুয়ারি তেহরানের খোমেনি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ১৭৬ জন আরোহী নিয়ে ইউক্রেন ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইনসের একটি বিমান (ফ্লাইট- পিএস-৭৫২) উড্ডয়ণের কিছুক্ষণের মধ্যেই বিধ্বস্ত হয়।

ভুল করে ছোড়া ইরানের র‌্যাব্যুলেশনারি গার্ডের একটি গোলার আঘাতে এটি বিধ্বস্ত হয়। প্রথমে ইরান এটি অস্বীকার করলেও পরে কানাডা একটি স্যাটেলাইট ভিডিও সামনে নিয়ে আসলে পরে তেহরান ভুল স্বীকার করে।

ইউক্রেনের বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার আগের দিন বাগদাদ বিমানবন্দরের কাছে মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত হন ইরানের শীর্ষ সামরিক কমান্ডার কাসেম সুলাইমানি।

এ কারণে টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছিল ইরানে। দেশটির সামরিক বাহিনীকে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় রাখা হয়। ইউক্রেনের বিমানটিকে শত্রুপক্ষের যুদ্ধবিমান মনে করে ভুল করে হামলা চালানো হয় বলে পরে ইরানের তদন্ত প্রতিবেদনে উঠে আসে।

ইরানের পার্লামেন্টে বুধবার এ ক্ষতিপূরণের টাকা দেয়ার বিষয়টি অনুমোদনের দুদিন আগে বিমান বিধ্বস্তের রিপোর্ট জমা দেয় দেশটির তদন্ত কমিটি। রিপোর্টে বলা হয় মানবীয় ভুলের (হিউম্যান এরর) কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। বিমানটির ১৭৬ আরোহীর বেশিরভাগই ছিল ইরান বংশোদ্ভূত কানাডার নাগরিক।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন