এক নারীর দুই স্বামী, উ’দ্ধার করতে গিয়ে বি’পদে ৩ পুলিশ

প্রকাশিত: ডিসে ৩০, ২০২০ / ১২:২৩অপরাহ্ণ
এক নারীর দুই স্বামী, উ’দ্ধার করতে গিয়ে বি’পদে ৩ পুলিশ

কুমিল্লার দেবীদ্বারের পালিয়ে যাওয়া প্রমিক যুগ;লকে উ’দ্ধা’র করতে গিয়ে তু’লকা’লাম কা’ণ্ড ঘটেছে। দেবীদ্বারের প্রেমিক যুগল;কে পুলিশ বুড়িচং উপজেলা থেকে উ;দ্ধার করতে গেলে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলে প্রে;মিক অ’চে’ত’ন হয়ে পড়লে তার মৃ’ত্যু’র গু’জব ছ’ড়িয়ে পড়ে।

তিন পুলিশকে গ’ণপি’টু’নি দিয়ে অ’বরু’দ্ধ করে রাখে স্থানীয়রা। ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে বুড়িচং থানা, দেবীদ্বার থানা, ক্যান্টম্যান্ট হাইওয়ে ও দেবপুর পুলিশ ফাঁ’ড়ির বিপুল সংখ্যক পুলিশ গিয়ে ঘটনাস্থল থেকে আ’ট’ক তিন পুলিশ ও

প্রেমিক যুগলকে উ’দ্ধা’র করে দেবীদ্বার থা’না’য় নিয়ে আসে। ওই ঘটনায় দেবীদ্বার থানায় প্রেমিক ইউছুফসহ তিনজনকে

অ’ভিযু’ক্ত করে প্রেমিকা আখি আক্তারের মা নূরজাহান বেগম বা’দী হয়ে দেবীদ্বার থানায় আজ একটি অ’পহ’র’ণ মা’ম’লা দা’য়ের করেন।

স্থানীয়রা জানায়, সোমবার রাতে ওই প্রেমিক যুগল পা’লিয়ে যায়। পরে প্রেমিকার মা মা’ম’লা করলে পুলিশ প্রেমিক ইউসুফের বড় ভাই ইব্রাহীমকে আ’ট’ক করে। পুলিশ ইব্রাহীমকে ছা’ড়িয়ে নিতে প’লাত’ক যুগলকে থানায় আসতে বলেন। ইউসুফ থানায় আসার পথে বুড়িচং উপজেলার পোস্ট অফিস রাম্পুর এলাকায় তাদের আ’ট’ক করতে আসা

দেবীদ্বার থানার তিন পুলিশ সদস্যের সঙ্গে বা’গবিত’ণ্ডা হয়। একপর্যায়ে প্রেমিক ইউসুফ অ’চে’তন হয়ে মাটিতে প’ড়ে যান। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্থানীয়রা ওই তিন পুলিশ সদস্যকে আ’ট’কে রেখে গণ;পি;টু;নি দেয়। ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে বুড়িচং থানা, দেবীদ্বার থানা, ক্যান্টম্যান্ট হাইওয়ে ও দেবপুর পুলিশ ফাঁ’ড়ি পুলিশ গিয়ে ঘটনাস্থল থেকে আ’ট’ক তিন পুলিশ ও প্রেমিক যুগলকে উ’দ্ধা’র করে দেবীদ্বার থানায় নিয়ে যায়।

বিহারমন্ডল গ্রামের আব্দুল গফুর জানান, প্রতিবেশী আখির সঙ্গে ইউছুফের দুই বছরের প্রেমের পর গতমাসে তারা

পা’লিয়ে বিয়ে করে। পারিবারিকভাবে মেনে নেওয়ার আ’শ্বা’সে তাদের ফিরিয়ে এনে আখিকে ২৩ ডিসেম্বর অন্যত্র বিয়ে দেওয়া হয়। নতুন স্বামীকে নিয়ে বাবারবাড়ি বেড়াতে এসে আখি ইউসুফের সঙ্গে পা’লিয়ে যায়। এ ব্যাপারে দেবীদ্বার থানার

ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহিরুল আনোয়ারের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি। তবে উ’দ্ধা’র করতে যাওয়া দেবীদ্বার থানার এএসআই ইকরামুল হক জানান, ঘটনাস্থলে দুটি গ্রু’প সৃষ্টি হওয়ায় আমাদের

বি’ড়ম্ব’না’য় পড়তে হয়েছে। আ’হ’ত ইউছুফ জানিয়েছে আমার লা’থি’তে নয়, তার মৃ’গী রো’গ থাকায় সে অ’চে’ত’ন হয়ে পড়েছিল।

বুড়িচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাম্মেল হক জানান, আমাদের অ’বহি’ত না করে আমাদের থানা থেকে আ’সা’মি ধ’রতে আসা হয়। যেহেতু অ’ভিযো’গটি দেবীদ্বার থানার সেহেতু ওই থানায় মা’ম’লা হতে বাঁ’ধা নেই।

ব্রাক্ষণপাড়া-দেবীদ্বার সার্কেল এএসপি আমিরুল্লাহ জানান, কিছু পুলিশ মানুষের সাথে আ’চর’ণের শিক্ষাটাও নেননি। তাদের কারণে গো’টা পুলিশ বাহিনীর ভা’বমূ’র্তী ক্ষু’ন্ন হচ্ছে। পেশাগত দায়িত্ব পালনে শৃঙ্খলা বি’রো’ধী কাজ করার অপরা’ধে দেবীদ্বার থানার এএসআই ইকরামুল হকসহ তিন পুলিশের বি’রু’দ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সূত্রঃ কালের কন্ঠ

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন