কাঁটার বিছানায় শুয়ে সত্যের প্রমাণ দেয় তারা!

প্রকাশিত: ডিসে ২৯, ২০২০ / ১০:৫৬পূর্বাহ্ণ
কাঁটার বিছানায় শুয়ে সত্যের প্রমাণ দেয় তারা!

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে আছে হাজারো কুসংস্কার। তা হোক, উন্নত বিশ্বে বিজ্ঞানের বুলি ছড়ানো দেশ অথবা অশিক্ষার অন্ধকারে ডুবে থাকা গরীব রাষ্ট্র- কুসংস্কারের প্রশ্নে উত্তর শুণ্য মেলা ভার! তবে অনেকের থেকে আলাদা একটি কুসংস্কার প্রায় পঞ্চাশ প্রজন্ম ধারণ করে আসছে ভারতের মধ্যপ্রদেশের বেতুল নামক গ্রামের বাসিন্দারা।

নিজেদের মনের কামনা-বাসনা পূরণ করতে ও দেবতাকে তুষ্ট করতে রাজ্জাদ সমাজের লোকেরা শুয়ে থাকেন কাঁটা বিঁছানো বিছানায়। এমনই বিশ্বাসের নামে বেদনাদায়ক ওই কুসংস্কার এই আধুনিক যুগেও চলছে। প্রতিবছর নিয়ম করেই পাঁচ দিন ধরে রাজ্জাদ সম্প্রদায় রীতিটি পালন করে।

লোকমুখে প্রচলিত আছে, পাণ্ডবেরা কাঁটার ওপর শুয়ে সত্যি পরীক্ষা দিয়েছিলেন। আর সেই সূত্র ধরে ওই সম্প্রদায়ের দাবি, তারা ‘পাণ্ডবদের বংশধর’, তাই তারাও বছরের পর বছর ধরে এই ঐতিহ্য মেনে আসছে। তাদের বিশ্বাস এতে সত্য এবং নিষ্ঠার পরীক্ষা হয় এবং ঈশ্বর খুশি হন এবং মনের ইচ্ছাও পূরণ হয় বলে তারা বিশ্বাস করেন।

প্রচলিত নিয়ম অনুসারে পূজা সারার পরে কাঁটা গাছের ডাল নিয়ে আসে তারা। এরপর সেই ডালের পূজা করা হয়। পুজার পরে সেই কাঁটা ডালের ওপরে লোকেরা শুয়ে পড়ে এবং নিজের সত্য এবং নিষ্ঠার পরীক্ষা দেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন