সৌদি আরবের ফ্লাইট নিয়ে এলো নতুন খবর

প্রকাশিত: ডিসে ২৮, ২০২০ / ১১:২২পূর্বাহ্ণ
সৌদি আরবের ফ্লাইট নিয়ে এলো নতুন খবর

বিশ্বের একাধিক দেশে নভেল করোনাভাইরাসের নতুন ধরন বা ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণের খবরে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে সাময়িক সব আন্তর্জাতিক বাণিজ্যিক ফ্লাইট বাতিলের সময়সীমা আরেক সপ্তাহের জন্য বাড়িয়েছে সৌদি আরব। দেশটির স্থল ও জল পথের সীমানাও বন্ধ রয়েছে। সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সৌদি প্রেস এজেন্সি (এসপিএ) এসব তথ্য জানিয়েছে।

যুক্তরাজ্য থেকে শুরু হয়ে বেশ কয়েকটি দেশে করোনাভাইরাসের নতুন ধরনটি ছড়িয়ে পড়ায় পৃথিবীর অনেক দেশের সঙ্গে সঙ্গে গত ১২ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় সৌদি আরব। একই সঙ্গে স্থল ও জলপথের সীমানাও বন্ধ ঘোষণা করে দেশটি

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সূত্রের বরাত দিয়ে এসপিএ জানিয়েছে, আন্তর্জাতিক ফ্লাইট, স্থল ও জলপথের সীমানা বন্ধের সিদ্ধান্ত আরেক সপ্তাহের জন্য বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এসপিএ জানায়, পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ অব্যহত রাখতে এবং নাগরিক ও অভিবাসীদের নিরাপত্তা রক্ষায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পণ্য পরিবহণও বন্ধ থাকবে। তবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বিধি মেনে বিদেশি যারা সৌদি আরবে আছেন তাদের দেশত্যাগে চার্টার ফ্লাইট চালু রাখতে পারবে বিদেশি এয়ারলাইন কোম্পানিগুলো। সেক্ষেত্রে বিমানের কর্মীরা সৌদি বিমানবন্দরে অবতরণ করতে পারবেন না এবং বিমানবন্দরের কর্মীদের সংস্পর্শেও আসতে পারবেন না।

সৌদি আরবের বেসামরিক বিমান কর্তৃপক্ষ জেনারেল অথরিটি অব সিভিল এভিয়েশন (জিএসিএ) জানিয়েছে, যেসব দেশে নতুন ধরনের করোনাভাইরাসের সংক্রমণ হয়েছে সেসব দেশের উদ্দেশে চার্টার ফ্লাইটও ছেড়ে যেতে পারবে না।

এ ছাড়াও ইউরোপসহ যেসব দেশে নতুন ধরনের করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে সেসব দেশ থেকে ৮ ডিসেম্বরের পরে আসা সবাইকে নিম্নোক্ত তিনটি নির্দেশনা মানতে হবে-

ক. সৌদি আরবে প্রবেশের দিন থেকে হিসাব করে দুই সপ্তাহ সেল্ফ আইসোলেশনে থাকতে হবে।

খ. আইসোলেশন চলাকালে পাঁচ দিন পর পর করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা করাতে হবে।

গ. গত তিন মাসের যেকোনো সময় ইউরোপসহ যেসব দেশে নতুন ধরনের করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে সেসব দেশে যাওয়া ব্যক্তিদের করোনাভাইরাসের পরীক্ষা করাতে হবে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন