চার বছরের মধ্যে স্বর্ণের দামে সর্বোচ্চ পতন

প্রকাশিত: ডিসে ১, ২০২০ / ০২:৩৬অপরাহ্ণ
চার বছরের মধ্যে স্বর্ণের দামে সর্বোচ্চ পতন

আন্তর্জাতিক বাজারে কয়েক দিন ধরে স্বর্ণের দামে অব্যাহত পতন বজায় রয়েছে। এ ধারাবাহিকতায় সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের স্পট মার্কেটে মূল্যবান ধাতুটির দাম কমে আউন্সপ্রতি এক হাজার সাতশো ৭০ ডলারের নিচে নেমে এসেছে। এতে এ মাসে ধাতুটির দামে চার বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ পতন দেখা গেছে।

খাত সংশ্লিষ্টরা বলছেন, করোনা ভাইরাস ভ্যাকসিন প্রাপ্তি নিয়ে আশাবাদ যত বাড়ছে, স্বর্ণের দাম ততই কমতে শুরু করেছে। তবে অনেকে বলছেন, স্বর্ণের এ দরপতন সাময়িক। দীর্ঘমেয়াদে মূল্যবান ধাতুটির বাজার চাঙ্গা থাকতে পারে।

সর্বশেষ কার্যদিবসের শুরুতে যুক্তরাষ্ট্রের স্পট মার্কেটে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম কমে দাঁড়ায় এক হাজার সাতশো ৬৬ ডলার ২৬ সেন্টে। তবে দিন শেষে মূল্যবান ধাতুটি আউন্সপ্রতি এক হাজার সাতশো ৭৪ ডলার ৬৫ সেন্টে বিক্রি হয়।

এ সময় ভবিষ্যতে সরবরাহ চুক্তিতে প্রতি আউন্স সোনার দাম দাঁড়ায় এক হাজার সাতশো ৭২ ডলার ২০ সেন্টে। যা আগের দিনের তুলনায় দশমিক ৫ শতাংশ কম। মার্কিন বাজারে চলতি মাসে স্বর্ণের দাম পাঁচ দশমিক নয় শতাংশ কমে গেছে। ২০১৬ সালের নভেম্বরের পর আর কোনও মাসে ধাতুটির দাম এতটা কমেনি।

এদিকে, ফরাসি বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠান সোসিয়েতে জেনারেলের পূর্বাভাস অনুযায়ী, ২০২০ সালে স্বর্ণের গড় দাম দাঁড়াতে পারে আউন্সপ্রতি দুই হাজার ৫০ ডলারে। আর ২০২১ সালের জানুয়ারি-মার্চ প্রান্তিকে তা আউন্সপ্রতি দুই হাজার তিনশো ৪০ ডলারে উন্নীত হতে পারে। এমনটা হলে সেটা হবে ইতিহাসে স্বর্ণের সর্বোচ্চ দাম।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন