যেভাবে হেলেনের প্রেমে পড়েছিলেন সেলিম খান

প্রকাশিত: নভে ২১, ২০২০ / ১১:৪৯অপরাহ্ণ
যেভাবে হেলেনের প্রেমে পড়েছিলেন সেলিম খান

বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের বাবা চিত্রনাট্যকার সেলিম খান ১৯৮০ সালে বিয়ে করেছিলেন অভিনেত্রী-নৃত্যশিল্পী হেলেনকে। সে সময় সালমানের বাবার বয়স ছিল ৪৫ বছর আর হেলেনের বয়স ছিল ৪২ বছর। এটি ছিল সেলিম খানের দ্বিতীয় বিয়ে।

গতকাল শুক্রবার ছিল হেলেনের ৮২তম জন্মদিন। এমন দিনে ভারতীয় গণমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে এই জুটির প্রেমের গল্প।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৯৩৫ সালে জন্ম নেওয়া সেলিম খান অভিনেতা হওয়ার জন্য মুম্বাই যান ২৩ বছর বয়সে। কয়েক বছর পর তিনি সুশীলা চরককে বিয়ে করেন। এক বছর পর সালমান খানের জন্ম হয়। ওই সময়ে সেলিম খান হেলেনের সঙ্গে কাজ করছিলেন। পঞ্চাশ-ষাট দশকে হেলেন বলিউডের তুমুল জনপ্রিয় নৃত্যশিল্পী। এ সময়ে তাঁরা প্রেমে পড়েছিলেন, কিন্তু সেলিমের বিয়ে বা’ধা হয়ে দাঁড়ায়। হেলেন পরে প্রেম নারায়ণ অরোরা নামে একজনকে বিয়ে করেন, তাঁর সঙ্গে হেলেনের বি’চ্ছে’দ হয় ১৯৭৪ সালে।

সেলিম খান এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন, ‘আমি কখন তার (হেলেন) প্রেমে পড়ি বা তাকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম, তা বলতে পারব না। দীর্ঘদিন দেখার পর আমরা আমাদের সম্পর্কে সম্মান জানাতে সিদ্ধান্ত নিই। আমরা ১৯৮০ সালে বিয়ে করি।’

অন্য এক সাক্ষাৎকারে হেলেন স্বীকার করেছিলেন, সেলিম বিবাহিত ব্যক্তি জেনে তিনি নিজেকে অ’প’রা’ধী মনে করেছিলেন। এ ছাড়া সেলিম খান মনে করেছিলেন, তাঁর স্ত্রী (প্রথম স্ত্রী) এবং বাচ্চারা হেলেনকে গ্রহণ করতে চাইবেন না।

১৯৮০ সালের দিকে বেশ বেড়ে ওঠা তাঁর বাচ্চারা হেলেনকে গ্রহণ করবে না, এটা স্বাভাবিক ছিল। সালমানের বয়স তখন ১৫ বছর এবং তিনি বুঝতে পেরেছিলেন যে কী ঘটছে।

যা-ই হোক, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সালমা এবং তাঁর সন্তানেরা দেখতে পেলেন যে হেলেন সত্যিই একজন ভালো ব্যক্তিত্ব এবং বছরের পর বছর ধরে তাঁর প্রতি তাঁদের অনুভূতি পরিবর্তিত হয়েছে। আজ হেলেন ও সেলিম এবং তাঁদের গৃহীত কন্যা অর্পিতা খান-পরিবারের অংশ।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন