অকেজো হয়ে গেছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ: ভারত

প্রকাশিত: নভে ১৭, ২০২০ / ০৬:৪৩অপরাহ্ণ
অকেজো হয়ে গেছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ: ভারত

জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের কর্তৃত্ব এবং কার্যকারিতা নিয়ে ব্যাপক ক্ষোভ প্রকাশ করেছে ভারত।

জাতিসংঘে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি টি এস তিরুমূর্তি বলেছেন, ‘নিরাপত্তা পরিষদ অকেজো অঙ্গে পরিণত হয়েছে। আচরণগত নিষ্ক্রিয়তার কারণে বিশ্বাসযোগ্য পদক্ষেপ করতেও ব্যর্থ হয়েছে।’ খবর এনডিটিভি ও আনন্দবাজার পত্রিকার।

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৫তম অধিবেশনে তিরুমূর্তি অভিযোগ করেন, আন্তঃরাষ্ট্র সরকারি স্তরের বৈঠক (আইজিএন)- প্রায়শই বিশ্ববিদ্যালয়ের বিতর্ক প্রতিযোগিতায় পরিণত হয়। সেখানে কার্যকরী পদক্ষেপের দিকনির্দেশ খোঁজার চেয়েও বেশি গুরুত্ব পায় পারস্পরিক চাপ।

গত জুন মাসে নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্য হিসেবে ভারত পুনর্নির্বাচিত হয়েছে। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়েল একটি সূত্র জানিয়েছে, আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে একাধিকবার সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপের দাবি তুলেছেন ভারতের প্রতিনিধি। কিন্তু তাতে কোনও ফলই মেলেনি। পাশাপাশি, মূলত চীনের বাধায় জনসংখ্যার দিক দিয়ে বিশ্বের বৃহত্তম গণতান্ত্রিক দেশ ভারত স্থায়ী সদস্যপদের দাবি করলেও কোনো ইতিবাচক পদক্ষেপ নেয়া হয়নি।

জাতিসংঘের ১৫ সদস্যের নিরাপত্তা পরিষদে ৫টি ভেটো ক্ষমতা সম্পন্ন স্থায়ী সদস্য রাষ্ট্র রয়েছে। তারা হলো যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, চীন, ব্রিটেন ও ফ্রান্স। বাকি ১০টি দেশ ২ বছরের জন্য সদস্য নির্বাচিত হয়।

তুরস্কসহ বেশ কয়েকটি দেশের বিরোধিতা

এর আগে তুরস্ক, ব্রাজিল ও জাপানও নিরাপত্তা পরিষদের বর্তমান সদস্য-কাঠামো সংস্কারের দাবি তুলেছে।

এর আগে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান মন্তব্য করেছিলেন, বিশ্বের পৌনে ২০০ কোটি মুসলমানের ভাগ্য এখন আর জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ স্থায়ী সদস্যের হাতে থাকতে পারে না।

গত বছর মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর সামিটের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান বলেন, বিশ্ব পাঁচের চেয়েও বড়। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ স্থায়ী সদস্য ভেটো ক্ষমতা রাখে ফলে ছোট দেশেগুলোর জন্য বিপত্তি হয়।

ভারত যা বলছে

জাতিসংঘে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি টি এস তিরুমূর্তি বলেন, ‘গত এক দশক ধরে নিরাপত্তা পরিষদের সংস্কারের বিষয়টি বারবার আইজিএন-এর আলোচনায় এলেও তার কোনও অগ্রগতি হয়নি।

এমনকি, সেই সব বৈঠকে আলোচ্য বিষয়গুলির রেকর্ড-ও ঠিক ভাবে সংরক্ষিত হয়নি বলে তাঁর অভিযোগ। তাঁর কথায়, ‘‘সাধারণ পরিষদ নির্ধারিত বিধিগুলি আইজিএন যাতে অনুসরণ করে, তা নিশ্চিত করা প্রয়োজন।’’

প্রসঙ্গত, সেপ্টেম্বরে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে ভিডিও বক্তৃতায় নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্যপদ পাওয়ার দাবি তুলেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি প্রশ্ন তুলেছিলেন, ‘‘আর কত দিন আমাদের অপেক্ষা করতে হবে? আর কত দিন জাতিসংঘের সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়ার বাইরে থাকবে ভারত?’’

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন