‘ক্ষমতা হস্তান্তরে ট্রাম্পের দেরিতে আরো মানুষ মারা যেতে পারে’

প্রকাশিত: নভে ১৭, ২০২০ / ১০:২১পূর্বাহ্ণ
‘ক্ষমতা হস্তান্তরে ট্রাম্পের দেরিতে আরো মানুষ মারা যেতে পারে’

যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, তাঁর প্রশাসনকে দায়্ত্বি নিতে দেরি করানোর কারণে আরো মানুষের মৃত্যু হতে পারে। মহামারি নভেল করোনাভাইরাস মোকাবিলা নিয়ে ডেলাওয়ার অঙ্গরাজ্যে স্থানীয় গতকাল সোমবার এক ব্রিফিংয়ে বাইডেন একথা বলেন।

ব্রিফিংয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের পরাজয় অস্বীকারকে জো বাইডেন ‘সম্পূর্ণ দায়িত্বজ্ঞানহীন’ কাজ বলে আখ্যা দেন। বাইডেন বলেন, ‘এটা জীবন বাঁচানোর সঙ্গে জড়িত। কোনো কল্পকাহিনী নয়। আমরা একে অপরকে সহযোগিতা না করলে আরো মানুষের মৃত্যু হবে।’

বাইডেন আরো বলেন, ‘দেশজুড়ে করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক পৌঁছে দেওয়াটাও বিশাল এক কর্মযজ্ঞ। কাজ শুরু করতে যদি আমার দলকে ২০ জানুয়ারি পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়, তাহলে আমাদের আড়াই মাসের মতো পিছিয়ে যেতে হচ্ছে।’

অন্যদিকে, ট্রাম্পের পরাজয় অস্বীকার নিয়ে সাবেক ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লিখেছেন, ‘এটা কোনো খেলা নয়।’

যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যমগুলোর ঘোষণা অনুযায়ী, জো বাইডেন ৩০৬টি ইলেকটোরাল কলেজ ভোট পেয়ে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন। অন্যদিকে, ডোনাল্ড ট্রাম্প পেয়েছেন ২৩২টি ভোট। এরপরও ট্রাম্প গতকাল সোমবার টুইট করেন, ‘আমি নির্বাচনে জিতেছি।’

যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীন সংস্থা জেনারেল সার্ভিস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (জিএসএ) নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ও ভাইস প্রেসিডেন্টকে স্বীকৃতি দেওয়ার কাজটি করে থাকে। ট্রাম্প প্রশাসনের অনুকূলে থাকা জিএসএ এখন পর্যন্ত প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেন ও ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে কমলা হ্যারিসকে স্বীকৃতি দেয়নি।

এ কারণে তাঁরা সরকারের স্পর্শকাতর বৈঠকগুলোতে থাকতে পারছেন না। যুক্তরাষ্ট্র সরকারের নিয়ম অনুযায়ী নবনির্বাচিতদের মতামতকে জনগুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্বের সঙ্গে নেওয়া হয়।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন