সৌদি আরব-সিঙ্গাপুর-রাশিয়া থেকে কেনা হচ্ছে ৬৪৩ কোটি টাকার সার

প্রকাশিত: নভে ১২, ২০২০ / ১১:৫২অপরাহ্ণ
সৌদি আরব-সিঙ্গাপুর-রাশিয়া থেকে কেনা হচ্ছে ৬৪৩ কোটি টাকার সার

সৌদি আরব, সিঙ্গাপুর ও রাশিয়া থেকে ৩ লাখ ৫ হাজার মেট্রিক টন রাসায়নিক সার কিনবে সরকার। রাষ্ট্রীয় চুক্তির আওতায় ও আন্তর্জাতিক কোটেশনের মাধ্যমে কিনতে যাওয়া এই সারের জন্য ব্যয় হবে ৬৪৩ কোটি ২৭ লাখ ৫৩ হাজার ৭৯৯ টাকা।

বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সম্মেলন কক্ষে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি’র ভার্চুয়াল বৈঠকে এ সংক্রান্ত ক্রয় প্রস্তাবের অনুমোদন দেওয়া হয়।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদের অতিরিক্ত সচিব আবু সালেহ মুস্তফা কামাল সংবাদ ব্রিফিংয়ে বৈঠকের বিস্তারিত তুলে ধরেন। তিনি সাংবাদিকদের জানান, বৈঠকে ক্রয় কমিটির অনুমোদনের জন্য ৮টি ক্রয় প্রস্তাব উত্থাপন করা হলে সবগুলোর অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। তারমধ্যে শিল্প মন্ত্রণালয়ের ৫টি, কৃষি মন্ত্রণালয়ের ১টি, বিদ্যুৎ বিভাগের ১টি এবং সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের ১টি প্রস্তাবনা ছিল।

ক্রয় কমিটির অনুমোদিত ৮টি প্রস্তাবে মোট অর্থের পরিমাণ ১৬ হাজার ২৭১ কোটি ৪৮ লাখ ৮০ হাজার ২৯২ টাকা। মোট অর্থায়নের মধ্যে জিওবি হতে ব্যয় হবে ১৫ হাজার ৬২৮ কোটি ২১ লাখ ২৬ হাজার ৪৯৩ টাকা এবং দেশীয় ব্যাংক থেকে ঋণ ৬৪৩ কোটি ২৭ লাখ ৫৩ হাজার ৭৯৯ টাকা।

তিনি বলেন, ‘শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন (বিসিআইসি) কর্তৃক রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে চুক্তির মাধ্যমে সৌদি আরব থেকে তিনটি লটে সৌদির বেসিক ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন (এসবিআইসি) থেকে ১৬৮ কোটি ২০ লাখ ১০ হাজার টাকার ৭৫ হাজার মেট্রিকটন বাল্ক প্রিল্ড ইউরিয়া সার ক্রয়ের তিনটি পৃথক প্রস্তাবের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।’

সৌদির বেসিক ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন থেকে ৫ম লটে ২৫ হাজার মেট্রি কটন, ৬ষ্ঠ লটে ২৫ হাজার মেট্রিক টন, ৭ম লটে ২৫ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক প্রিল্ড ইউরিয়া সার ক্রয় করবে সরকার। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে মোট ১৬৮ কোটি ২০ লাখ ১০ হাজার টাকা।

বৈঠকে শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন (বিসিআইসি) আন্তর্জাতিক কোটেশনের মাধ্যমে সিঙ্গাপুরের আরিস ফার্টিলাইজারস গ্রুপের কাছ থেকে ১ম লটে ২৫ হাজার মেট্রিকটন মেট্রিক টন ব্যাগড গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ৬৬ কোটি ৮৩ লাখ ৬৫ হাজার ৩৬২ টাকা।

অপর প্রস্তাবে একই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক কোটেশনের মাধ্যমে সুইস সিঙ্গাপুর ওভারসিজ এন্টারপ্রাইজ থেকে ১ম লটে ২৫ হাজার মেট্রিক টন ব্যাগড গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার কেনার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ৬৬ কোটি ৮৬ লাখ ৬২ হাজার ৬৮৭ টাকা।

এছাড়া বিএডিসি ও রাশিয়ার জেএসসি ফরেন ইকোনমিক এসোসিয়েশন ‘প্রোডিনট্রং’র মধ্যে রাষ্ট্রীয় চুক্তির আওতায় ২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য এক লাখ ৮০ হাজার মেট্রিকটন মিউরেট অব পটাশ (এমওপি) সার কেনার প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ৩৪১ কোটি ৩৭ লাখ ১৫ হাজার ৭৫০ টাকা।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন