সালমার দুর্দান্ত বোলিংয়ে ট্রেইলব্লেজার্সের শিরোপা জয়

প্রকাশিত: নভে ১০, ২০২০ / ০৭:৩৬পূর্বাহ্ণ
সালমার দুর্দান্ত বোলিংয়ে ট্রেইলব্লেজার্সের শিরোপা জয়

প্রথমবারের মতো নারীদের আইপিএলখ্যাত উইমেন্স টি-টোয়েন্টি শিরোপার স্বাদ নিল বাংলাদেশের সালমা খাতুনের দল ট্রেইলব্লেজার্স।

প্রথম আসরে সুপারনোভাসের কাছে দুর্ভাগ্যজনকভাবে হারার প্রতিশোধ নিল সালমারা।

প্রথম দুই আসরে না ছিলেন না বাংলাদেশ নারী টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক সালমা।

তবে এবার সুযোগ পেয়েই নিজের জাত চেনালেন তিনি।

ফাইনালেও তার পারফরম্যান্স ছিল নজরকাড়া।

১১৮ রানের স্বল্প পূজি নিয়েও মূলত সালমা খাতুনের দুর্দান্ত বোলিংয়ে সুপারনোভাসকে ১৬ রানে হারিয়েছে ট্রেইলব্লেজার্স।

এদিন মাত্র ১৮ রান খরচায় দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট শিকার করেছেন সালমা।

নিয়েছেন প্রতিপক্ষের সেরা উইকেট অধিনায়ক হারমানপ্রিত কাউরের।

সোমবার রাতে শারজাহ ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাট করে ৮ উইকেট হারিয়ে ১১৮ রান করে সালমার ট্রেইলব্লেজার্স। সর্বোচ্চ ৬৮ রান আসে অধিনায়ক স্মৃতি মান্ধানার ব্যাট থেকে।

ওপেনিংয়ে নেমে ৪৯ বলে ৫ বাউন্ডারি আর ১ ছক্কায় ৬৮ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন স্মৃতি। তার ব্যাটে ভর করে এক পর্যায়ে মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে ১১২ রানে পৌঁছায়। ধারণা করা হচ্ছিল, রানের পাহাড় গড়বে ট্রেইলব্লেজার্স।

তবে সুপারনোভাসের রাধা যাদব তা হতে দেয়নি। তার ঘূর্ণিবলে মাত্র কয়েক রানের ব্যবধানেই ৬ উইকেট হারিয়ে ফেলে ট্রেইলব্লেজার্স।

দিয়েগো ডটিন ৩২ বলে ২০ আর রিচা ঘোষ ১৬ বলে ১০ রান যোগ করে আউট হলে মাত্র ১১৮ রানে থেমে যায় ট্রেইলব্লেজার্সের ইনিংস।

রাধা যাদব মাত্র ১৬ রানের বিনিময়ে নেন ৫টি উইকেট।

জবাবে ১১৯ রানের মামুলি টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১০ রানের মাথায় সোফি একেলেস্টোনের বলে আউট হন সুভারনোভাসের সেরা ব্যাটার চামারি আতাপাত্তু।

দ্বিতীয় উইকেটে ২০ রানের জুটি গড়েন জেমাইমাহ রদ্রিগেজ ও তানিয়া ভাটিয়া। ১৪ রান করে দিপ্তী শর্মার প্রথম শিকারে পরিণত হন তানিয়া। দলের রান যখন ৩৭ জেমাইমাহকে আউট করেন সেই দিপ্তী।

ইনিংসের ১৩তম ওভারে প্রথমবারের মতো আক্রমণে আসেন সালমা। তার দ্বিতীয় ওভারেই ১৯ রানে ব্যাট করতে থাকা শশীকলাকে আউট করেন সালমা।

নিজের চতুর্থ ওভারে সুপারনোভাসের শেষ ভরসা অধিনায়ক হারমানকে বোল্ড করে দেন সালমা।

একই ওভারে শূন্য রানে ফেরান পুজা ভাস্ত্রাকারকে।

ইনিংসের শেষ ওভারে জয়ের জন্য সুপারনোভাসের প্রয়োজন ছিল ২৪ রানের। একলেস্টোনের করা সেই ওভারে মাত্র ৭ রান যোগ করতে পারে সুপারনোভাসের টেল-এন্ডাররা।

ফলে ১৬ রানের জয়ে শিরোপা নিশ্চিত করে সালমার ট্রেইলব্লেজার্স।

জবাবে সুপারনোভাসের ইনিংস থেমেছে ৭ উইকেটের বিনিময়ে ১০১ রান করে। সালমার ৩ উইকেটের সুবাদে ১৬ রানের সহজ জয়ই পেয়েছে ট্রেইলব্লেজার্স।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন