প্রিয়া সাহার বক্তব্যের সঙ্গে এস কে সিনহার যোগসূত্র আছে: কামরুল

সাবেক খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেছেন, প্রিয়া সাহার বিতর্কিত বক্তব্যের সঙ্গে সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার যোগসূত্র আছে। এটা খতিয়ে দেখতে হবে।

শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের (বোয়াফ) ‘সাবেক বিচারপতি এস কে সিনহার দুর্নীতি ও ক্ষমতার অপব্যবহার’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।

কামরুল ইসলাম আরও বলেন, আইএস ও ড. কামালদের প্রিয় লোক হিসেবে এস কে সিনহা কাজ করেছেন।

তিনি বলেন, যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান, প্রধান বিচারপতি হয়েও তিনি (এস কে সিনহা) মীর কাসেম আলী ও সাকা চৌধুরীর পরিবারের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। মীর কাসেম আলীর মামলা খালাস দেওয়ার কথা ছিল তার। চুক্তিবদ্ধ হয়ে মীর কাসেম আলীর মামলা ত্রুটিপূর্ণ বলে অধিকতর তদন্তের জন্য পাঠানোর কথা ছিল তার। হঠাৎ অধিকতর তদন্তের জন্য মামলা পাঠিয়ে দেওয়া যায়, তবে মামলা চলত দুই থেকে তিন বছর। এর মধ্যেই বিএনপি ক্ষমতায় আসবে। আর তিনি মাঝখানে জুডিসিয়াল ক্রু করতেন। এই ছিল তার পরিকল্পনায়।

কামরুল ইসলাম বলেন, এস কে সিনহা বিচার বিভাগকে মানুষের কাছে হেয় করতে চেয়েছিলেন। এখন কানাডায় রাজনৈতিক আশ্রয়ের মাধ্যমে সেখানে আরেকটি ষড়যন্ত্রের পরিকল্পনা করছেন।

অনুষ্ঠানে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, আমাদের বিচার ব্যবস্থায় এত বড় দুর্নীতিবাজ বিচারপতি আসেনি। তিনি বিচার ব্যবস্থাকে ভূলুণ্ঠিত করেছেন। এস কে সিনহা ভারত সরকারকে চিঠি লিখেছেন, তারা যেন এদেশের সঙ্গে যোগাযোগ না রাখে।

মন্ত্রী বলেন, এস কে সিনহার বিরুদ্ধে ১৪টি অভিযোগ আছে। তিনি তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টেই দুর্নীতির টাকা রেখেছেন। আর তার সহকর্মীরা বলেছেন, তার সঙ্গে এক বেঞ্চে বিচার করা যায় না।

বোয়াফ সভাপতি কবীর চৌধুরী তন্ময়ের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি মুহম্মদ শফিকুর রহমান এমপি, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আরিফা রহমান রুমা, স্বদেশ রায় প্রমুখ।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত