পাবনায় গ্রামবাসীর হাতে ধরা পড়ল ২ মেছোবা’ঘ

প্রকাশিত: অক্টো ২, ২০২০ / ০৮:৫৬অপরাহ্ণ
পাবনায় গ্রামবাসীর হাতে ধরা পড়ল ২ মেছোবা’ঘ

পাবনার চাটমোহরে দিনেদুপুরে গ্রামবাসীর হাতে আ’ট’ক হয়েছে দুটি মেছোবাঘ। এর মধ্যে একটি বা’ঘ’কে পি’টি’য়ে মা’রে স্থানীয়রা। অন্যটি বনবিভাগের কাছে হ’স্তা’ন্তর করা হয়েছে।

শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার ডিবিগ্রাম ইউনিয়নের বামনগ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এদিকে বাঘ আ’ট’ক করতে গিয়ে আ’হ’ত হয়েছেন ৪ যুবক।

স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার সকালে বামনগ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া একটি ক্যানেলে নামে দুই মেছোবা’ঘ। এ সময় স্থানীয় কয়েকজন দেখে ভয়ে দৌড়ে পালান। পরে বিষয়টি স্থানীয় লোকজনকে বললে মসজিদের মাইকে বা’ঘ বের হয়েছে বলে ঘোষণা দেয়া হয়।

পরে বিপুলসংখ্যক লোকজন জড়ো হয়ে মেছোবা’ঘ দুটি আ’ট’ক করে। এ সময় বাঘের কামড় ও আঁচড়ে ৪ জন আ’হ’ত হলে একটি বাঘকে পি’টিয়ে মে’রে ফেলে উ’ত্তে’জি’ত জনতা। পরে বাঘ দুটি ইউনিয়ন পরিষদের সামনে রাখা হয়।

খবর পেয়ে বন বিভাগের পাবনা রেঞ্জের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রঞ্জিবুল আমিন, উপজেলা বন কর্মকর্তা আবদুল কুদ্দুসসহ ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে ছুটে যান। সেখান থেকে মৃ’ত ও জীবন্ত মেছোবাঘ দুটি উ’দ্ধা’র করেন তারা।

বিভাগের পাবনা রেঞ্জের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রঞ্জিবুল আমিন যুগান্তরকে বলেন, আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে বা’ঘ দুটিকে উ’দ্ধা’র করেছি। তবে উৎসুক জনতা একটা বা’ঘ’কে পি’টি’য়ে মেরেছে। অন্যটিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

পি’টি’য়ে মেরে ফেলা বাঘের ব্যাপারে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে পরে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈকত ইসলাম লেন, ঘটনাটি শোনার পরই বন বিভাগের কর্মকর্তা, ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশকে সেখানে পাঠানো হয়।

বাঘ পি’টি’য়ে মা’রা’র বিষয়ে যথাযথ আইনি প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হবে। আর আ’হ’ত চারজন হতদরিদ্র হওয়ায় তাদের চিকিৎসা সমাজসেবা কার্যালয়ের মাধ্যমে ক’রা’নোর ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানান ইউএনও।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন