ইরানের আকাশ ব্যবহার করায় জরিমানার মুখে এমিরেটস

প্রকাশিত: অক্টো ২, ২০২০ / ০২:২৩অপরাহ্ণ
ইরানের আকাশ ব্যবহার করায় জরিমানার মুখে এমিরেটস

ইরানের আকাশ ব্যবহার করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যাত্রী পরিবহন করার অভিযোগে এমিরেটস এয়ারলাইন্সকে ৪ লাখ ডলার জরিমানা করেছে মার্কিন পরিবহন বিভাগ।

গত বছর যেসময় ইরান-মার্কিন সম্পর্ক উত্তপ্ত ছিল ওই সময়ে যুক্তরাষ্ট্রের নির্দেশনা না মানায় এমিরেটসকে এই জরিমানার মুখে পড়তে হয়েছে বলে বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) জানিয়েছে সংবাদ মাধ্যম আলজাজিরা। তবে, একই ধরনের ভুল আগামী এক বছর আর না করলে জরিমানা অর্ধেক দিতে হবে না বলেও জানানো হয়েছে।

ইরান, ওমান উপসাগরে মার্কিন নজরদারি ড্রোন ভূ-পাতিত করার পর ইরানের আকাশ, উপসাগার এমনকি ওমান উপসাগরের আকাশ ব্যবহারেও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে মার্কিন বিমান পরিবহন প্রশাসন।

ওই সময় এই নিষেধাজ্ঞা আরোপের কারণ হিসেবে মার্কিন প্রশাসনের যুক্তি ছিল, এই আকাশসীমা ব্যবহার করলে রাজনৈতিক উত্তেজনায় মার্কিন যাত্রীবাহী বিমানকে ভুল করে সামরিক বিমান ভেবে ভূ-পাতিত করার ঝুঁকি ছিল।

ঠিক ওই সময়, ২০১৯ সালের জুলাই মাসে ১৯ দিন নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ফ্লাইট পরিচালনা করে এমিরেটস এয়ারলাইন্স, এমন অভিযোগ মার্কিন প্রশাসনের। অবশ্য এমিরটেস কর্তৃপক্ষ মনে করে না যে, এই নির্দেশনা অমান্য জরিমানা কারণ হতে পারে। তবুও বিষয়টি মীমাংসার জন্য তারা এ বিষয়ে দ্বিমত পোষণ করেনি।

তারা জানিয়েছে, মার্কিন বিমান পরিবহন কর্তৃপক্ষের জরিমানার আদেশের পর এমিরেটস এয়ারলাইন্স প্রতিদিন ইরানে দু’টি ফ্লাইট পরিচালনা ছাড়া ইরানের আকাশ পথ ব্যবহার করে যুক্তরাষ্ট্রে যাত্রী পরিবহন থেকে সরে এসেছে।

ওই সময়ে যুক্তরাষ্ট্র থেকে ও যুক্তরাষ্ট্রে যাত্রী পরিবহনে ‘ভুল করে’ জেটব্লু এয়ারলাইন্সের কোড ব্যবহারে করেছিল বলেও জানিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের সবচেয়ে বড় বিমান পরিবহন সংস্থাটি।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন