সৌদি ভিসা দরকার ২৫ হাজার, সপ্তাহে ২০ ফ্লাইট

প্রকাশিত: সেপ্টে ৩০, ২০২০ / ১১:২০অপরাহ্ণ
সৌদি ভিসা দরকার ২৫ হাজার, সপ্তাহে ২০ ফ্লাইট

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, ক’রোনার কারণে সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরে বাংলাদেশে অবস্থানরত প্রায় ২৫ হাজার সৌদি প্রবাসীকে পুনরায় ভিসা নিতে হবে। এদিকে, আগামীকাল থেকে সপ্তাহে দেশটিতে ২০টি ফ্লাইট পরিচালিত হবে বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, সৌদি আরবে যাদের কর্মসংস্থান আছে, কিন্তু ক’রোনার মহামা’রির মধ্যে দেশে এসে আ’টকা পড়ায় ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে তাদের নতুন করে ভিসা নিয়েই দেশটিতে যেতে হবে।

বুধবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ গালফভুক্ত ৬টি দেশ ও মালয়েশিয়ার প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠক শেষে পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রবাসী সংকটের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে এসব কথা বলেন।

এ সময় আব্দুল মোমেন জানান, দেশে আসা সৌদি প্রবাসীদের মধ্যে যাদের ভিসার মেয়াদ আছে, পর্যায়ক্রমে তাদের ফেরত নেয়ার কথা জানিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। তবে গত মার্চে ভিসা পাওয়াদের মধ্যে যাদের মেয়াদ শেষ হয়েছে, তাদের ভিসা রি-ইস্যু করাতে হবে।

তবে দেশে আসা সৌদি প্রবাসীদের মধ্যে যাদের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে এবং যাদের কফিল (চাকরিদাতা) আর নিতে চান না, তাদের জন্য কিছুই করার নেই।

এখন পর্যন্ত এ ধরনের ৫৩ জন প্রবাসী পাওয়া গেছে উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, তাদের অন্য কফিল অথবা বিকল্প কর্মসংস্থান কিংবা দেশে কর্মকংস্থানের ব্যবস্থা করতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত ৭০০ কোটি টাকার ফান্ড থেকে তাদের সহায়তা নেওয়ারও পরমার্শ দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

এদিকে, আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে সৌদি-বাংলাদেশ রুটে সপ্তাহে ২০টি করে ফ্লাইট চলবে বলে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, সৌদি এয়ারলাইন্স ও বিমান বাংলাদেশ ১০টি করে ফ্লাইট পরিচালনা করবে। এতে করে অধিকাংশ প্রবাসী দ্রুত সৌদি আরব ফিরতে পারবেন।

সৌদি ছাড়া আর কোনো দেশে শ্রমিক পাঠাতে সমস্যা নেই উল্লেখ করে মন্ত্রী আরো জানান, সংযুক্ত আরব আমিরাতে প্রতি সপ্তাহে ১৭টি ফ্লাইট চলছে। এই সংখ্য আরো বাড়াতে আগ্রহ দেখিয়েছে তারা।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন