৩ জনকে ন্যায্যমূল্যের চাল পা’চারকালে আ’টক

প্রকাশিত: সেপ্টে ২৭, ২০২০ / ১০:২৭অপরাহ্ণ
৩ জনকে ন্যায্যমূল্যের চাল পা’চারকালে আ’টক

ন্যায্যমূল্যের চাল রোববার ভোরে পা’চা’রের সময় পুলিশ ৮ টন চালসহ ৩ জনকে আ’ট’ক করেছে। সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার কৈজুরী ইউনিয়নের দরিদ্রদের জন্য বরাদ্দকৃত ন্যায্যমূল্যের চাল রোববার ভোরে পাচারের সময় পুলিশ ৮ টন চালসহ ৩ জনকে আ’ট’ক করেছে।

আ’ট’ককৃতরা হল- উল্লাপাড়া উপজেলার পার সোনতলা গ্রামের মতিয়ার রহমানের ছেলে ট্রাকচালক রুবেল (৩০), একই গ্রামের মোক্তার হোসেনের ছেলে হেলপার আলম (৩৬) ও একই উপজেলার নাগরৌহা গ্রামের কামরুল ইসলামের ছেলে রবিউল ইসলাম (৫৫)।

ট্রাকভর্তি চালসহ আটককৃতদের শাহজাদপুর থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। এই চাল কৈজুরী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলামের ঘনিষ্ঠ সহযোগী ও চাল ডিলার পেশকার আলী, আব্দুল হাই প্রামাণিক, আজম আলী ও আব্দুর রশিদের বলে এলাকাবাসী অ’ভি’যোগ করেছেন।

এ বিষয়ে শাহজাদপুর থানার ওসি শাহিদ মাহমুদ ও এলাকাবাসী জানান, রোববার ভোরের দিকে কৈজুরী বাজার এলাকা থেকে ১০ টাকা কেজি দরের ৮ টন ওজনের ১৩৪ বস্তা চাল পা’চা’রের জন্য কৈজুরী কবরস্থান, ঋষিপাড়ার সামনের একটি গুদাম ও খামারগ্রামের ৩টি স্থান থেকে ট্রাকে উঠানো হয়।

এরপর ট্রাকটি কৈজুরী থেকে রওনা দিয়ে উল্লাপাড়া যাওয়ার পথে থানারঘাট করতোয়া ব্রিজের উপর যাওয়ামাত্র গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অ’ভি’যান চালিয়ে এসআই আসাদুর রহমানের নেতৃত্বে শাহজাদপুর থানা পুলিশের একটি দল চালবোঝাই ওই ট্রাক, ট্রাকের চালক ও দুই হেলপারকে আ’ট’ক করে থানায় নিয়ে যায়।

এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে এলাকাবাসী কৈজুরী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলামসহ ডিলার ও চাল পা’চা’রকারীদের শা’স্তি’র দাবিতে বিক্ষোভ করেন।

এ ঘটনায় রোববার সকালে শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মো. শামসুজ্জোহা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন। এ ঘটনায় শাহজাদপুর থানায় একটি মা’ম’লা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন