এসপি মাসুদকে ফুল দিয়ে বি’দায়

প্রকাশিত: সেপ্টে ২৪, ২০২০ / ০৯:০৩অপরাহ্ণ
এসপি মাসুদকে ফুল দিয়ে বি’দায়

কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, বিপিএমকে (বার) ফুল দিয়ে বি’দায় জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে প্রথাগতভাবে বিদায় দেয়া হয়। এর আগ মুহূর্তে জেলা পুলিশের ব্যান্ড পার্টিসহ নানা ফুলে সজ্জিত গাড়িতে ফুলের রশি বেঁধে পুলিশ লাইন্স থেকে জানানো হয় বিদায়। এসময় সদ্য যোগদানকৃত পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান পিপিএম উপস্থিত ছিলেন।

কক্সবাজার মুক্তিযোদ্ধা সংসদসহ অনেক সামাজিক সংগঠন তাকে বি’দায়ী সংবর্ধনা দিয়েছে।কক্সবাজারে দুই বছর কর্মরত ছিলেন তিনি। ‘এক প্রদীপ’ই নিভিয়ে দিল সকল অর্জন।

গত ৩১ জুলাই টেকনাফের বাহারছড়ায় অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান পুলিশের গু’লিতে নি’হত হওয়ার ঘটনায় ওসি প্রদীপ ও এসআই লিয়াকতের সঙ্গে ফোনালাপ ভাইরাল হওয়ার পর এসপি মাসুদও ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন।

টেকনাফ থানার বরখাস্ত ওসি প্রদীপের নানা কুকর্ম পুরো বাংলাদেশ পুলিশকে প্রশ্নবিদ্ধ করে। সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা হ’ত্যা মা’মলায় কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেনকে আ’সামি হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করার আবেদন করেন মামলার বাদী ও সিনহার বোন শারমীন শাহরিয়া ফেরদৌস। কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না ফারাহর আদালতে ওই আবেদন করেছিলেন। পরে ওই আবেদন আদালত খারিজ করে দেন।

সিনহার বড় বোন বাদী হয়ে পুলিশের বি’রুদ্ধে দায়ের করা হ’ত্যা মামলার তদন্তে পুলিশ সুপার হ’স্তক্ষেপ করার অভিযোগ তুলে আদালতে ফৌজদারি দরখাস্ত দায়ের করেন। পরে এই বিষয়টি নিয়ে পুলিশের ঊর্ধ্বতন মহলের আলোচনা চলে। পরে গত ১৬ সেপ্টেম্বর তাকে রাজশাহী রেঞ্জ বদলি করা হয়।

এদিকে গত ১৭ আগস্ট কক্সবাজারের পুলিশ সুপার (এসপি) এবিএম মাসুদ হোসেনসহ ৮ জনের ব্যাংক হিসাব ৩০ দিনের জন্য স্থগিত করে বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইউ)।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন