পানি বাড়ছে নদীতে, নৌবন্দরে সংকেত

প্রকাশিত: সেপ্টে ২৪, ২০২০ / ০৬:১৯অপরাহ্ণ
পানি বাড়ছে নদীতে, নৌবন্দরে সংকেত

টানা বৃষ্টির কারণে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে প্রতিকূল অবস্থার কারণে দেশের অধিকাংশ নদীবন্দরকে ২ নম্বর নৌ হুঁ’শি’য়ারি সং’কেত দেখাতে বলা হয়েছে।

দেশের ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে, অপরদিকে যমুনা নদীর পানি স্থিতিশীল আছে। পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় গঙ্গা-যমুনা উভয় নদীর পানি বৃদ্ধি পেতে পারে।

গঙ্গা-উত্তরাঞ্চলের আপার মেঘনা অববাহিকার প্রধান নদীর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। পদ্মা নদীর পানি স্থিতিশীল থাকতে পারে, যা পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর ও ভারত অধিদপ্তরের গাণিতিক মডেলের তথ্য অনুযায়ী, আগামী ৪৮ ঘণ্টায় দেশের উত্তরাঞ্চল, উত্তরাঞ্চল-পূর্বাঞ্চল ও তৎসংলগ্ন আসাম,

মেঘালয় এবং দার্জিলিং অঞ্চলে মাঝারি থেকে ভারি বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস রয়েছে। ফলে দেশের উত্তরাঞ্চল ও উত্তরাঞ্চলের প্রধান সব নদীর পানি বৃদ্ধি পেতে পারে এবং পরবর্তী সময়ে তা অব্যাহত থাকতে পারে।

এদিকে, ধরলা নদীর পানি বিপৎসীমার উপরে অবস্থান করতে পারে। দেশের ১০১টি পর্যবেক্ষণাধীন পয়েন্টের মধ্যে পানি বৃদ্ধি পেয়েছে ৫৫টিতে, হ্রাস পেয়েছে ৪৪টিতে।

গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে উল্লেখযোগ্য বৃষ্টিপাত হয়েছে। এর মধ্যে,পঞ্চগড়ে ১৫৫ মিলিমিটার, গাইবান্ধায় ১৬৫ মিলিমিটার, রংপুরে ৯৫ মিলিমিটার, চিলমারীতে ৯৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড হয়েছে।

এদিকে দেশের বেশির ভাগ এলাকার নদীবন্দরকে ২ নম্বর নৌ হুঁ’শি’য়ারি সং’কে’ত দেখাতে বলা হয়েছে।

আজকে দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরসমূহের জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্রগ্রাম এবং কক্সবাজার অঞ্চলসমূহের ওপর দিয়ে দক্ষিণ-দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি-বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

এ ছাড়া দেশের অন্যত্র অঞ্চলসমূহের ওপর দিয়ে একই দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি-বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা-ঝ’ড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

এসব স্থানের নদীবন্দরসমূহকে ২ নম্বর সতর্ক সং’কে’ত দেখাতে বলা হয়েছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন