‘মুম্বাই খ্যাতি দিয়েছে সুশান্তকে, বিহার কিছুই করেনি’

প্রকাশিত: আগ ৯, ২০২০ / ০৮:০৩অপরাহ্ণ
‘মুম্বাই খ্যাতি দিয়েছে সুশান্তকে, বিহার কিছুই করেনি’

ভারতের বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমার সুশান্ত মামলায় বিহার পুলিশকে তদন্তের নির্দেশ দেওয়ার পর থেকেই বিহার ও মুম্বাই সরকারের মধ্যে তরজা অব্যাহত। শিবসেনার দাবি, ‘বিহার নয়, সুশান্তকে গৌরবান্বিত করেছে মুম্বাই’। সুশান্তের মৃ’ত্যু নিয়ে বিহার ও দিল্লি রাজনীতি করছে বলে অ’ভি’যোগ শিবসেনার।

শিবসেনার দলীয় মুখপত্র ‘সামনা’য় লেখা হয়েছে, সুশান্ত সিং রাজপুতের বিষয়ে বিহার সরকারের হস্তক্ষেপ করা উচিত নয়। গত কয়েকবছর ধরে সুশান্ত মুম্বাইকার (মুম্বইয়ের বাসিন্দা)। বিহার সুশান্তের লড়াইয়ে সামিল হয়নি, ওকে গৌরবান্বিত করেছিল মুম্বাই।

শিবসেনার অ’ভি’যোগ, সুশান্তের মৃ’ত্যু নিয়ে বিহারের পাশাপাশি দিল্লিতেও রাজনীতি হচ্ছে। শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউতের কথায়, সুশান্তের মৃ’ত্যু নিয়ে বিহার ও দিল্লিতে যেভাবে রাজনীতি হচ্ছে, আমার মনে হয় এটা মহারাষ্ট্র সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র। মুম্বাই পুলিশ সত্য সামনে আনার জন্য যথেষ্ঠ চেষ্টা করেছে।

মুম্বাই পুলিশের সমালোচনা করে বিহার পুলিশের প্রধান গুপ্তেশ্বর পান্ডে যে মন্তব্য করেছেন, সেপ্রসঙ্গে তাঁকেও ‘সামনা’ পত্রিকায় আ’ক্র’মণ করা হয়। লেখা হয়। এটা হাস্যকর, গুপ্তেশ্বর পান্ডে আসলে বিজেপি কিংবা জেডেইউ-এর টিকিটে বিহার নির্বাচনে ল’ড়াই করতে চাইছেন। আর তাই তিনি মুম্বই পুলিশের বি’রু’দ্ধে মুখ খুলেছেন।

এখানেই শেষ নয়, শিবসেনার মুখপাত্র সঞ্জয় রাউতের দাবি করা হয়, সুশান্তের সঙ্গে তাঁর বাবা কে কে সিং রাজপুতের সম্পর্ক মোটেও ভালো ছিল না। তাঁর প্রশ্ন, সুশান্ত কতবার তাঁর বাবার কে কে সিং রাজপুতের সঙ্গে দেখা করতেন?

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন