এ কোন ‘রাজা’ কমলাপুরে!

প্রকাশিত: জুলা ৩০, ২০২০ / ০৮:৫২অপরাহ্ণ
এ কোন ‘রাজা’ কমলাপুরে!

আর একদিন পরই পবিত্র ঈদুল আজহা। এখন পুরোদমে চলছে কোরবানির পশুর বেচাকেনা। রাজধানীর বড় পশুর হাটগুলোর অন্যতম কমলাপুর হাট। এ বাজারে এখন পর্যন্ত আসা সবচেয়ে বড় গরুর নাম ‘রাজা’।

প্রায় ২৭ মণ ওজনের এ গরুর দাম হাঁকা হয়েছে ১০ লাখ টাকা। কিন্তু বাজারে উঠনোর পর থেকে গত চারদিনেও ‘রাজা’কে বিক্রির জন্য কোনো ক্রেতা পাননি মালিক শহিদ সরকার। প্রতিদিনই গরুটি দেখতে ভিড় জমাচ্ছেন উৎসুক জনতা।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে কমলাপুর পশুর হাটে গিয়ে দেখা যায়, পশুর তুলনায় ক্রেতা কম। গত কয়েকদিনের তুলনায় আজ বিকেল থেকে বিক্রি কিছুটা বেড়েছে বলে জানান বিক্রেতারা। হাটের মাঝখানে রাখা হয়েছে ‘রাজা’কে। সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ার শহিদ সরকার ও তাঁর ভাই অলি সরকার এ গরুর মালিক। তারা বাজারে আরো কয়েকটি গরু এনেছেন।

বাজারে আসা অনেক কিশোর ‘রাজা’র সঙ্গে দাঁড়িয়ে সেলফি তুলছেন। কেউবা গরুটিকে একবার ধরে দেখে মনের ইচ্ছা পূরণ করছেন।

এর মধ্যে রবিউল নামের এক ব্যক্তি ‘রাজা’কে দেখে বলে উঠেন, ‘ও মা! কমলাপুরে এ কোন রাজা?’

পাশ থেকে শাহীন নামের আরেকজন বলেন, ‘এত বড় গরু আগে দেখিনি।’

‘রাজা’র মালিক শহিদ সরকার বিকেলে এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘আমার নিজের গরুর খামার আছে। সেই খামারে পাঁচ বছর আগে গরুটির জন্ম। এরপর গরুটি নিজেই লালন-পালন করেছি। বাছুর থেকে বড় করেছি।’

শহিদ সরকার আক্ষেপ করে বলেন, ‘বাজারে এনেছি চারদিন হলো। কেউ কেনার জন্য আসেননি। শুধু দাম জিজ্ঞাসা করে; কিনতে চায় না। এটা বিক্রি করতে না পারলে অনেক ক্ষতি হবে। খাবারের জন্যই প্রতিদিন এর পিছনে অনেক খরচ। এত টাকা খরচ করে লালন-পালনের পর বিক্রি করতে না পারলে একেবারে মাঠে মারা যাব।’

বাজার ঘুরে দেখা গেছে, এখনো অনেকেই গরু দেখছেন, যাচাই করছেন, কিন্তু কিনছেন না। কেনার জন্য আগামীকাল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে চান তারা।

তবে ব্যবসায়ীরা আশাবাদী, আজ ক্রেতা সমাগম কম হলেও আগামীকাল শুক্রবার শেষদিনে হয়তো বেচাকেনা জমে উঠবে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন