থাইল্যান্ডের সাশ্রয়ী উড়োজাহাজ সংস্থা নকস্কোট বন্ধ হয়ে যাচ্ছে

প্রকাশিত: জুন ৩০, ২০২০ / ০২:৪১পূর্বাহ্ণ
থাইল্যান্ডের সাশ্রয়ী উড়োজাহাজ সংস্থা নকস্কোট বন্ধ হয়ে যাচ্ছে

লোকসানের মুখে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনসের আংশিক মালিকানাধীন সাশ্রয়ী উড়োজাহাজ সংস্থা নকস্কোট। নভেল করো’না’ভা’ইরাসের প্রভাবে আরোগ্যের সম্ভাবনা সুদূরপরাহত হওয়ায় থাইল্যান্ডভিত্তিক উড়োজাহাজ সংস্থাটির পরিচালনা পর্ষদ এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সিঙ্গাপুরভিত্তিক স্কোট ও নক এয়ারলাইনসের যৌথ উদ্যোগ হিসেবে ২০১৪ সালে চালু হওয়ার পর থেকেই পূর্ণ বছর মুনাফার মুখ দেখেনি উড়োজাহাজ সংস্থাটি।

শুক্রবার এক বিবৃতিতে কোম্পানিটি জানায়, ক’ভি’ড-১৯ মহা’মা’রী থেকে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে নবীন এ উড়োজাহাজ সংস্থাটির সামনে অভূতপূর্ব চ্যালেঞ্জ হাজির হয়।

চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণের আগে শেয়ারহোল্ডাররা আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে বসতে চাইছে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়। নকস্কোটের ৪৯ শতাংশ শেয়ারের মালিক সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনস বলছে, তারা উড়োজাহাজ সংস্থাটির আরোগ্য লাভ এবং টেকসই প্রবৃদ্ধির সম্ভাবনা দেখছে না।

তারা আরো জানায়, নক এয়ারের কাছে ১ থাই বাথ শেয়ারদরে প্রতিটি শেয়ার বিক্রি করে দিতে রাজি হলেও নকস্কোট কিনতে সম্মত হয়নি ওই উড়োজাহাজ সংস্থাটি। তখন কোম্পানি বন্ধ করে দেয়ার যৌথ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

নকস্কোট বন্ধ হয়ে গেলে উড়োজাহাজ সংস্থাটির ৪৫০ কর্মী বেকার হয়ে পড়বেন। আইন অনুযায়ী কর্মীদের সম্পূর্ণ সুবিধাদি দেয়া হবে বলে জানায় কোম্পানিটি।

সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনস থেকে বোয়িং ৭৭৭-২০০ উড়োজাহাজ লিজ নিয়ে ব্যাংকক থেকে সিঙ্গাপুর, তাইপেই ও চীনের বিভিন্ন গন্তব্যে ফ্লাইট পরিচালনা করত নকস্কোট।

ব্যাংককের ডন মুয়াং বিমানবন্দর থেকে একই সঙ্গে জাপানের তিনটি শহরে ফ্লাইট পরিচালিত হয়। সাশ্রয়ী উড়োজাহাজ সংস্থাগুলোর মধ্যে তীব্র প্রতিযোগিতার জেরে নভেল করো’না’ভা’ইরাস মহা’মা’রীর আগে থেকেই বাজারে ধুঁকছিল নকস্কোট।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন