ইউপি চেয়ারম্যান ধ’র্ষণ মা’মলায় প’লাতক

প্রকাশিত: জুন ২৮, ২০২০ / ১১:৪৬অপরাহ্ণ
ইউপি চেয়ারম্যান ধ’র্ষণ মা’মলায় প’লাতক

রাঙ্গামাটির বরকল উপজেলার ভূষণছড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ মামুনের বি’রু’দ্ধে ধ’র্ষ’ণ মা’ম’লা দায়ের করা হয়েছে। এ মা’ম’লায় গ্রে’ফ’তার এড়াতে তিনি পলা’ত’ক রয়েছেন।

তিনি রাঙ্গামাটি জেলার বরকল উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও বরকল উপজেলা যুবলীগের সভাপতি। তাকে গ্রে’ফ’তারে অ’ভি’যান তৎপরতা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

জানা গেছে, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে স্থানীয় এক বিবাহিতা নারীকে (২০) তার স্বামীকে তা’লা’ক দিতে বলেন ভূষণছড়া ইউপি ও বরকল উপজেলা যুবলীগের সভাপতি চেয়ারম্যান মামুন।

এতে স্বামীকে তালাক দেন ওই নারী। এরপর বিয়ের প্র’লো’ভনে দীর্ঘদিন ধরে তাকে ধ’র্ষ’ণ করেন মামুন। ফলে ধ’র্ষি’তা বর্তমানে সাত মাসের গর্ভ’বতী। কিন্তু তা অস্বীকার করেন ইউপি চেয়ারম্যান মামুন।

এতে ধ’র্ষ’ণে’র অভি’যো’গে বাদী হয়ে ২৪ জুন বরকল থানায় মামুনের বি’রু’দ্ধে মা’ম’লা দেন ধ’র্ষি’তার বাবা মো. নাছির হাওলাদার। এরপর থেকে আসামি প’লা’তক রয়েছেন। তাই এখনও তাকে গ্রে’ফ’তার করতে পারেনি পুলিশ।

তবে মা’ম’লার বাদী মো. নাছির হাওলাদার অভিযোগ করে বলেন, আসামি মামুন ভূষণছড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগ সভাপতি। তাই তার রাজনৈতিক প্রভাবে প্রকাশ্য ঘুরে বেড়ালেও মামুনকে গ্রে’ফ’তার করছে না পুলিশ।

এ দিকে মামলার পরদিন ২৫ জুন রাঙ্গামাটির নারী ও শিশু নি’র্যা’তন দ’ম’ন আদালতে আইনের ২২ ধারায় ধ’র্ষি’তার জবানবন্দি নেয়া হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

বরকল থানার ওসি কাজী মো. জসিম উদ্দিন বলেন, মা’ম’লা’টি আমলে নেয়া হয়েছে। ভি’ক’টিমকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য রাঙ্গামাটি সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আদালতে স্বশরীরে হাজির হয়ে আ’সা’মির বি’রু’দ্ধে জবানবন্দি দিয়েছেন ভিকটিম। বর্তমানে আসামি মামুন চেয়ারম্যান প’লা’তক। তাকে গ্রে’ফ’তারে পুলিশি তৎপরতা চলছে। আ’সা’মিকে এলাকায় পাওয়া যাচ্ছে না।

সুত্রঃ যুগান্তর

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন