মেলায় বৈধ হলো ৫১ কোটি টাকার সোনা

প্রথমবারের মতো আয়োজিত স্বর্ণমেলার প্রথম দুই দিনে প্রায় ৫১ কোটি টাকার সোনা, রূপা ও ডায়মন্ড বৈধ করেছেন ব্যবসায়ীরা।

তবে মেলার শেষদিনে এর পরিমাণ শত কোটি টাকা ছাড়িয়ে যেতে পারে প্রত্যাশা মেলা সংশ্লিষ্টদের।

মেলার শেষ দিন মঙ্গলবার সন্ধায় হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে হবে সমাপনী অনুষ্ঠান। যেখানে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি ও এনবিআর চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া উপস্থিত থাকবেন।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির (বাজুস) সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা বলেন, ‘স্বর্ণ মেলায় এ পর্যন্ত কেবল ঢাকাতেই ২৫০ জন স্বর্ণ ব্যবসায়ী ৫০ কোটি টাকার বেশি স্বর্ণ বৈধ করেছেন। এর মধ্যে গতকাল সোমবার ১৭৮ জন ২৫ কোটি টাকার বেশি দিয়েছেন। আর ঢাকা ও চট্টগ্রামের ৩৬৬ জন ব্যবসায়ী অবৈধ স্বর্ণ বৈধ করেছেন।’

মেলার প্রথম দিন বাজুস সভাপ‌তি গঙ্গা চরণ মালাকার, সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালাসহ ৭২ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান ২৫ কোটি টাকার স্বর্ণ বৈধ করেছেন।

এ বিষয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সদস্য (কর ও প্রশাসন) কানন কুমার রায় বলেন, ‘মেলায় ব্যবসায়ীদের সাড়া পেয়েছি। অনেকে ফরম নিয়েছেন। আশা করছি, প্রত্যাশা অনুসারে মেলায় কর দেবেন ব্যবসায়ীরা।’

২৩ জুন শুরু হওয়া এ মেলা সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে। দেশের আট বিভাগে এই স্বর্ণ মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

২৩ জুন সকালে মেলার উদ্বোধন করেন এনবিআরের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া।

মেলায় মোট ২০টি বুথ রয়েছে। এর মধ্যে কর প্রদাণের জন্য বেসিক ব্যাংক ও সোনালী ব্যাংকের পৃথক বুথ রয়েছে। তিন দিনব্যাপী আয়োজিত মেলায় স্বর্ণব্যবসায়ীরা কর দিয়ে তাদের কাছে মজুদকৃত স্বর্ণের ঘোষণা দিচ্ছেন।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত