নিজের দল থেকে বহিষ্কারাদেশ চ্যালেঞ্জের ঘোষণা মাহথিরের

প্রকাশিত: মে ২৯, ২০২০ / ১১:২১অপরাহ্ণ
নিজের দল থেকে বহিষ্কারাদেশ চ্যালেঞ্জের ঘোষণা মাহথিরের

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ নিজের দল থেকে বহিষ্কারাদেশের বিরু’দ্ধে চ্যালেঞ্জের ঘোষণা দিয়েছেন। দেশটির এ সাবেক প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও দলটির সিনিয়র তিন সদস্য ও তার ছেলেকে দল থেকে অপসারণ করা হয়।

শুক্রবার মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আলজাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, এক বিবৃতিতে মাহাথির মোহাম্মদসহ ব’হিষ্কার হওয়া পাঁচ নেতা জানিয়েছেন, ক্ষমতা সংহত করতে বারসাতু প্রেসিডেন্ট এককভাবে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এর বি’রু’দ্ধে আইনগত চ্যালেঞ্জ করবেন তারা। এছাড়া বারসাতু পার্টিকে ক্ষমতা লাভের হাতিয়ার হতে না দেওয়ারও অঙ্গীকারও ব্যক্ত করেন তারা।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার মাহাথির মোহাম্মদ নিজের দল বারসাতু থেকে মাহাথির, তার ছেলে ও দলের তিন সিনিয়র সদস্যকে বহিষ্কার করা হয়। এর কারণ হিসেবে বলা হয়, গত ১৮ মে দেশটির পার্লামেন্টের অধিবেশন চলাকালীন বিরোধী দলের সংসদ সদস্যদের আসনে বসায় তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া দলটির একটি চিঠিতে বলা হয়, গত সপ্তাহে সংসদে বৈঠককালে বিরোধী দলের আসনে বসেন মাহাথির। প্রধানমন্ত্রী ও দলীয় সভাপতির পদে মুহিউদ্দিনের নেতৃত্বকে প্রত্যাখ্যান করায় স্বাভাবিকভাবেই তার সদস্যপদ বাতিল হয়।

মু্হিউদ্দিনের প্রধানমন্ত্রীত্ব নিয়ে গত ১৮ মে দেশটির পার্লামেন্টের আস্থাভোটের ডাক দেন মাহাথির মোহাম্মদ। মাহাথির বলেন, মালয়েশিয়ায় এখন গণতন্ত্র বলে আর কিছু নেই।

মাহাথির গত ফেব্রুয়ারিতে সরকার প’ত’নের ষ’ড়’যন্ত্রের অ’ভি’যোগ তুলে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ান। পরে জোটের আরেক নেতা আনোয়ার ইব্রাহিমের অনুরোধে তিনি পার্লামেন্টের অধিবেশনে আবারও প্রধানমন্ত্রী পদে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন।

এরপরই মাহাথিরকে পাশ কাটিয়ে দলের চেয়ারম্যান মুহিদ্দিন বি’রো’ধীদলের সঙ্গে আঁতাত করে সংখ্যাগরিষ্ঠ সমর্থন আদায় করেন এবং প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন