করোনা থেকে বাঁচতে চিকিৎসা নিতে এসে আগুনে হলেন নিথর

প্রকাশিত: মে ২৮, ২০২০ / ১১:৫৩পূর্বাহ্ণ
করোনা থেকে বাঁচতে চিকিৎসা নিতে এসে আগুনে হলেন নিথর

করোনাভাইরাসের উপসর্গ দেখা দেয়ায় বাঁচার লড়াই করতে তারা ভর্তি হয়েছিলেন হাসপাতালে। অথচ সেই হাসপাতালে তাদের মৃত্যু হলো অগ্নিকাণ্ডে। রাজধানীর গুলশানের বেসরকারি ইউনাইটেড হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত সন্দেহে ভর্তি পাঁচ রোগীকে প্রাণ দিতে হলো আগুনের ধোঁয়ায় শ্বাসরুদ্ধ হয়ে। তাদের চারজন পুরুষ, একজন নারী।

ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বুধবার (২৭ মে) রাত ৯টা ৫৫ মিনিটে হাসপাতালটিতে আগুন লাগলে খবর পেয়ে তাদের তিনটি ইউনিট ঘটনাস্থলে কাজ করে তা নিয়ন্ত্রণে আনে। মূল ভবনের বাইরে করোনা আইসোলেশন ইউনিটে (তাঁবু গেড়ে স্থাপিত) এ আগুন মাত্র ১০ মিনিট স্থায়ী হলেও এতে শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মারা গেছেন ওই পাঁচজন।

অগ্নিকাণ্ডের বিষয়ে ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক (ডিজি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাজ্জাদ হোসাইন জানান, অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা সেখানে পৌঁছান এবং সব মিলিয়ে আধঘণ্টার মধ্যে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

তিনি জানান, অগ্নিকাণ্ড হাসপাতালের মূল ভবনে ঘটেনি। জরুরি বিভাগের পাশে করোনা রোগীদের জন্য পৃথক আইসোলেশন ইউনিট নির্মাণ করে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল, সেখানে চারটি কক্ষ এবং আইসিইউ সুযোগ সুবিধা গড়ে তোলা হয়েছিল, ওখানেই আগুন লেগেছে।

হাসপাতালের অগ্নিনিরাপত্তা বিষয়ে ফায়ার সার্ভিসের ডিজি বলেন, অগ্নিনিরাপত্তা ব্যবস্থা ওইভাবে ছিল না। কিন্তু ইউনিটের কাছেই ফায়ার হাইড্রেন্ট ছিল। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বোধ হয় ফায়ার হাইড্রেন্ট ব্যবহার করতে পারেনি।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন