দেশে করোনায় রেকর্ড মৃত্যু, সহস্রাধিক শনাক্ত

প্রকাশিত: মে ২৪, ২০২০ / ০৩:০৩অপরাহ্ণ
দেশে করোনায় রেকর্ড মৃত্যু, সহস্রাধিক শনাক্ত

দেশে আরও ১ হাজার ৫৩২ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া এই সময়ের মধ্যে মারা গেছেন ২৮ জন। ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত এটাই সর্বোচ্চ মৃত্যুর ঘটনা। করোনাভাইরাস নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন বুলেটিনে রোববার (২৪ মে) এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বুলেটিনে অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা বলেন, গেল ২৪ ঘণ্টায় ৯ হাজার ১৮৪ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৪৭টি ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়েছে ৮ হাজার ৯০৮টি নমুনা। এর মাঝে করোনা শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৫৩২ জনের শরীরে।

তিনি আরও বলেন, এই সময়ের মধ্যে মারা গেছেন ২৮ জন। এ নিয়ে মোট ৪৮০ জন মারা গেলেন। এছাড়া এই সময়ে ৪১৫ জন সুস্থ হয়েছেন বলেও জানান তিনি।

এর আগে গতকালও দেশে প্রায় দুই হাজার ব্যক্তির শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এছাড়া মারা যায় ২০ জন। শনাক্তের সংখ্যা বিবেচনায় শনিবারই বাংলাদেশ বিশ্বের দুই শতাধিক দেশ ও অঞ্চলের মধ্যে ২৫ নম্বরে উঠে আসে। দিনে দিনে এই তালিকায় উপরের দিকে উঠছে বাংলাদেশ। আর এতে করে বাড়ছে আতঙ্ক।

তবে এর মাঝেও সাধারণ মানুষের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করার বিষয়টিকে তেমন গুরুত্ব না দেয়ার চিত্র ফুটে উঠেছে। বিশেষ করে ঈদকে কেন্দ্র করে রাজধানী ছাড়ার বিভিন্ন সড়ক-মহাসড়কে সাধারণের ঢল দেখা গেছে। যা নিয়ন্ত্রণে রাখতে হিমশিম খেতে হচ্ছিল আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে। এ কারণে আরও কঠোর হতে হয়েছে তাদের।

শেষে ব্যক্তিগত গাড়ি ব্যবহার করে বাড়ি ফেরার অনুমোদন দেয়া হয়। কিন্তু সেখানেও নানা ফন্দি করে বাড়ি ফিরতে দেখা গেছে মানুষকে।

তিন থেকে চার গুণ টাকা দিয়ে ব্যক্তিগত গাড়ি ভাড়া করে বাড়ি ফিরতে দেখা গেছে তাদের। এক্ষেত্রে তারা মানছেন না সামাজিক দূরত্বের বিষয়টিও। তাদের এমন অগ্রাহ্যের মানসিকতার কারণে করোনার সংক্রমণ বহুগুণ বাড়তে পারে বলে হুঁশিয়ার করে দিয়েছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

অন্যদিকে করোনায় বিশ্ব পরিস্থিতিতেও তেমন একটা উন্নতি নেই। বিশ্বে এখন পর্যন্ত ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে ৫৪ লাখ ৮ হাজার ১৮৭ জনের শরীরে। এছাড়া এতে মারা গেছেন ৩ লাখ ৪৪ হাজার ৪১ জন। অন্যদিকে ভাইরাসমুক্ত হয়েছেন ২২ লাখ ৪৮ হাজার ৯০৬ জন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন