একটা ফ্যান ও বাল্বের বিদ্যুৎ বিল এলো ১৫৭ কোটি টাকা !

দুই জনের সংসার। ঠিকমত তিন বেলা খাবার জোটে না। ঘরে চলত শুধুমাত্র একটা ফ্যান আর বাল্ব। অথচ সেই পরিবারে এক মাসের বিদ্যুৎ বিল এসেছে বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৫৭ কোটি টাকার বেশি। এই ঘটনা ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশে।

জানা যায়, দিল্লি থেকে ৮০ কিলোমিটার দূরে, উত্তরপ্রদেশের হাপুর জেলার চামরি গ্রামে স্ত্রীকে নিয়ে বাস করেন শামিম নামের এক ব্যক্তি। অনেক কষ্টে বাড়িতে বিদ্যুৎ সংযোগ পেয়েছিলেন।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শামিম জানান, তাদের বাড়িতে ২ কিলোওয়াটের বিদ্যুৎ সংযোগ রয়েছে। বাল্ব ও পাখা চালিয়ে প্রতি মাসে ৭০০-৮০০ রুপির মতো বিল আসে। কিন্তু সম্প্রতি বিল হাতে পেয়ে চোখ কপালে ওঠে তার। তাতে ১২৮ কোটি ৪৫ লক্ষ ৯৫ হাজার ৪৪৪ রুপি পরিশোধ করতে বলা হয়েছে।

শামিমের দাবি, প্রথমে কিছুই বুঝে উঠতে পারছিলেন না। হিসাবে কোথাও ভুল হয়েছে বলে তিনি জানান। তবে তার কথা বিদ্যত অফিসের কেউ শুনেনি। তাই টাকা জমা দেওয়ার নির্ধারিত দিন পেরিয়ে গেলে বিদ্যুৎ সংযোগ কেটে দেওয়া হয়।

সংবাদ সংস্থা এএনআই’কে শামিম জানান, কেউ আমাদের কথা শুনছে না। এত টাকা কী করে দিই বলুন তো? শুধু আলো-পাখা ব্যবহার করি আমরা। তাতে এত বিল হয় কী করে?

তিনি আরও বলেন, অভিযোগ জানাতে গিয়েছিলাম। কিন্তু বিল না মেটালে বিদ্যুৎ সংযোগ চালু হবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে বিদ্যুত্ অফিস।

বিষয়টি সেখানকার স্থানীয় বিদ্যুৎ দফতরে যোগাযোগ করা হলে, তাদের ইঞ্জিনিয়ার রাম শরণ বলেন, সম্ভবত প্রযুক্তিগত ভুল হয়েছে। এটা এমন কিছু বড় ব্যাপার নয়। তথ্যসূত্র: এনডিটিভি, এএনআই, আনন্দবাজার।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত