জীবননগরে আম্পানের তা’ণ্ডবে দুইজন নিহ’ত

প্রকাশিত: মে ২১, ২০২০ / ১১:০২অপরাহ্ণ
জীবননগরে আম্পানের তা’ণ্ডবে দুইজন নিহ’ত

চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে ঘূর্ণিঝ’ড় আম্পানের তা’ণ্ড’বে ঘরবাড়ি-গাছপালা ও ফসলের ক্ষেতে ব্যাপক ক্ষ’য়’ক্ষ’তি হয়েছে। এ সময় ঘরের দেয়াল ও গাছ চাপা পড়ে জীবননগরে নারীসহ দুইজনের মৃ’ত্যু হয়েছে।

বুধবার রাত ১০টা থেকে প্রচণ্ড গতিতে আম্পান আ’ঘা’ত হানে জীবননগরে। প্রায় তিন ঘণ্টাব্যাপী চলা আম্পানের তা’ণ্ড’বে উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের শতশত বাড়িঘর ও গাছপালা ভেঙে পড়ে ব্যাহত হয়েছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা।

জীবননগর উপজেলার বিদায়ী নির্বাহী কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম জানান, ঝড়ের সময় উপজেলার বৈদ্যনাথপুর গ্রামে গাছ চাপা পড়ে জুবাইর নামে ১২ বছরের এক শিশুর মৃ’ত্যু হয়েছে।

ওই শিশু গ্রামের আত্তাব আলীর ছেলে। এছাড়া একই সময়ে উপজেলা শহরে ঘরের দেয়াল চাপা পড়ে মোমেনা বেগম (৮৪) নামে এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। তিনি ওই এলাকার ইউসুফ আলীর স্ত্রী।

উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে প্রতিটি পরিবারকে নগদ ১০ হাজার টাকা করে প্রদান করা হয়। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে রাতেই বিভিন্ন গ্রামের মসজিদে মাইকিং করে সাধারণ মানুষকে শেল্টারহোমগুলোতে আশ্রয় নিতে বলা হয়।

স্থানীয় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্র জানিয়েছে, চলতি মৌসুমে বোরো ধান, পানবরজ, ভুট্টাক্ষেত, আম ও কলাসহ উঠতি ফসলাদি বেশি ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। এর মধ্যে আম ও কলা প্রায় ৪০ শতাংশ ক্ষতির মুখে পড়েছে। এখনো ক্ষতি নিরূপণের কাজ চলছে।

চুয়াডাঙ্গা আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের পর্যবেক্ষক সামাদুল হক জানান, জেলায় ঝড়ের সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৮২ কিলোমিটার। বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ১৪৮ মিলিমিটার।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন