দেশে সাইক্লোনের কারণে বন্যার আশঙ্কা

প্রকাশিত: মে ২০, ২০২০ / ০৩:০২অপরাহ্ণ
দেশে সাইক্লোনের কারণে বন্যার আশঙ্কা

সুপার সাইক্লোন আম্পানের প্রভাবে ভারী বর্ষণে সারা দেশে বন্যা হওয়ার শঙ্কা রয়েছে বলে জানিয়েছেন জলবায়ুবিদরা। তাই শুধু উপকূল নয়, সারা দেশের কথা মাথায় রেখে প্রস্তুতি নিতে হবে। একই সঙ্গে ফসল সংরক্ষণেও গুরুত্ব দেয়ার পরামর্শ তাদের।

উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে সুপার সাইক্লোন আম্পান। বলা হচ্ছে, সাম্প্রতিক সময়ে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড়গুলোর তুলনায় অনেক বেশি শক্তিশালী এটি। শক্তির বিবেচনায় যাকে তুলনা করা হচ্ছে ১৯৯১ সালের প্রলয়ঙ্কারি ঘূর্ণিঝড় ও ২০০৭ সালে তাণ্ডব চালানো সিডরের সঙ্গেও।

আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, কোনো কোনো ক্ষেত্রে সিডরের চেয়েও বেশি শক্তিশালী আম্পান। সরাসরি উপকূলে আঘাত হানলে যা বয়ে আনতে পারে ভয়াবহ ক্ষতি। তবে সুন্দরবন হয়ে আঘাত হানলে কিছুটা নিরাপদ হতে পারে বলেও মনে করছেন তারা।

এ প্রসঙ্গে আবহাওয়াবিদ আব্দুল মান্নান সময় সংবাদকে বলেন, সুপার সাইক্লোন হবার মতো সব শক্তি ও তাপমাত্রা আম্পান পেয়েছিল। তাই এত দ্রুত এটি শক্তিশালী হয়ে গেছে।

জলবায়ুবিদ অধ্যাপক ড. সাইফুল ইসলাম সময় সংবাদকে বলেন, সুন্দরবন হয়তো আমাদের এবারও রক্ষা করবে। এটি যদি আরেকটু ঘুরে সিডরের মতো দেশে আসে তাহলে ক্ষতির পরিমাণ বেড়ে যাবে।

শুধু ঝড়ই নয়, আম্পানের প্রভাবে সপ্তাহজুড়ে থাকতে পারে ভারী বৃষ্টি। এতে পাহাড়ি ঢল ও নদ নদীর পানি বেড়ে নিম্নাঞ্চলে বন্য হতে পারে বলেও সতর্ক করেছেন জলবায়ু গবেষকরা।

জলবায়ুবিদ ড. বিশ্বজিৎ নাথ সময় সংবাদকে বলেন, সাইক্লোনের জন্য টানা পাঁচ ছয় দিন বৃষ্টি হবে। চন্দ্রগ্রহণের কারণে এর মাত্রা আরো বাড়বে। ঝড় পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবিলায় শুধু উপকূল নয়, সারা দেশকে গুরুত্ব দিয়ে প্রস্তুতি নিতে বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন