মালয়েশিয়া ফিরে অভিবাসীদের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকার খরচ দিতে হবে

প্রকাশিত: মে ১৭, ২০২০ / ০৭:০৩অপরাহ্ণ
মালয়েশিয়া ফিরে অভিবাসীদের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকার খরচ দিতে হবে

মালয়েশিয়ায় সেকেন্ড হোম ভিসাধারী অভিবাসীদের মালয়েশিয়া প্রবেশের অনুমতি দেয়া হয়েছে। তবে কিছু শর্তের মধ্যে দিয়ে মালয়েশিয়ায় গমন করতে পারবে। মালয়েশিয়ার মিনিস্ট্রি ও টুরিজম, আর্টস এন্ড কালচার আজ এক মিডিয়া বিজ্ঞপ্তিতে বিভিন্ন দেশে আটকে পড়া ২৫২ জন সেকেন্ড হোম ভিসাধারী অভিবাসীকে মালয়েশিয়া পুনরায় ফিরে আসার বিষয়ে অনুমতি সাপেক্ষে একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে যে, মালয়েশিয়া মাই সেকেন্ডে হোম সদস্যদের ফিরে আসার বিষয়ে একটি বিচারিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে যার মাধ্যমে অন্যান্য দেশে আটকে পড়া সদস্যরা তাদের পরিবারের কাছে ফিরে আসতে পারবে। মালয়েশিয়ার সরকার মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার বা এম’সি’ও কে শিথিল করার মাধ্যমে শর্তসাপেক্ষে মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার ঘোষণা করেছে কিন্তু মালয়েশিয়ার বিভিন্ন ভিসাধারী অভিবাসীদের প্রবেশের অনুমতি দেয়নি পাশাপাশি আন্তর্জাতিক বানিজ্যিক বিমান উঠানামা করার ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নেয় হয়নি।

এদিকে বিভিন্ন দেশে আটকে পড়া ২৫২ জন সেকেন্ড হোম ভিসাধারী তাদের পরিবারের কাছে ফিরে আসার জন্য মন্ত্রণালয়ের নিকট আবেদন করেছিল। তারই পরিপ্রেক্ষিতে মালয়েশিয়ার সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানানো হয়েছে। কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাব ছড়িয়ে যাওয়া থেকে মালয়েশিয়ার সরকার যখন দেশকে রক্ষা করার জন্য মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার বা লকডাউন ঘোষণা করে সমস্ত আন্তর্জাতিক বানিজ্যিক বিমান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছিলো তখন বিভিন্ন দেশের অভিবাসী কর্মী, স্থানীয় নাগরিক, এবং মাই সেকেন্ড হোম ভিসাধারী অভিবাসীরা আটকে পড়ে, স্বাভাবিকভাবে মালয়েশিয়া ফিরে আসা সম্ভব হয়নি৷

কিন্তু মালয়েশিয়ার স্থানীয় নাগরিকদের বিভিন্ন দেশ থেকে বিশেষ মিশনের মাধ্যমে ফিরিয়ে নিয়ে আসা হয়েছিলো যেখানে মাই সেকেন্ড হোম সদস্যদের আসার অনুমতি ছিলনা। আগামি ১৭ই মে থেকে শুধুমাত্র মাই সেকেন্ড সদস্যরা মালয়েশিয়া ফিরে আসতে পারবে তবে ছুটিতে বা বেড়াতে যাওয়া অভিবাসী কর্মীরা মালয়েশিয়ায় পুনরায় প্রবেশের বিষয়ে এখনো কোন সিদ্ধান্ত নেয়নি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়।

মালয়েশিয়ায় বিমানবন্দরে আসার পর কিছু নির্দিষ্ট নিয়মাবলি পালন করার মাধ্যমে প্রবেশাধিকার দেয়া হবে। সবাইকে বিমানবন্দর থেকে কোভিড-১৯ টেস্ট করার পর কোয়ারেনটিন স্টেশন গুলোতে ১৪ দিন অবস্থান করতে হবে এবং কোয়ারেনটিনে থাকার যাবতীয় খরচ সমুহ প্রদান করতে হবে। অর্থাৎ কোয়ারেনটিনে ১৪ দিন থাকার খরচ মালয়েশিয়া সরকার বহন করবেনা। সেকেন্ড হোম ভিসাধারী অভিবাসীদেরকেই এই খরচ বহন করতে হবে।

বার্তা সংস্থা বারনামাতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে মালয়েশিয়ার সিনিয়র মন্ত্রী ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব প্রাপ্ত ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব বলেছিলেন যে, অভিবাসী কর্মীদের দেশে ফিরে আসা এখনো বন্ধ রয়েছে, তবে স্থানীয় নাগরিকদের বিশেষ বিমানে নিয়ে আসা হয়েছে। মাই সেকেন্ড হোম ভিসাধারী অভিবাসীদের ফিরে আসার ক্ষেত্রে কোয়ারেনটাইন এর সকল খরচ প্রদান করতে হবে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন