ধৈর্যের বাঁধ ভেঙে গেছে, আর বসে থাকা সম্ভব নয়: মরিনহো

প্রকাশিত: মে ১৫, ২০২০ / ০৮:২৯অপরাহ্ণ
ধৈর্যের বাঁধ ভেঙে গেছে, আর বসে থাকা সম্ভব নয়: মরিনহো

প্রিমিয়ার লিগে ফিরতে মরিয়া হয়ে আছেন টটেনহ্যামের ম্যানেজার হোসে মরিনহো। যদিও ইংলিশ ফুটবল লিগ পুনরায় মাঠে ফেরার ব্যপারে বেশ কিছু শঙ্কা রয়েছে।

ইতোমধ্যেই বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় এই পরিস্থিতিতে মাঠে ফিরে আসার ব্যপারে সং’শয় প্রকাশ করেছেন যাদের মধ্যে অন্যতম সার্জিও আগুয়েরো, রাহিম স্টার্লিং ও ড্যানি রোজ। এদের প্রত্যেকেই নিজেদের পাশাপাশি পরিবারের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিয়ে দুশ্চিন্তা প্রকাশ করেছে।

মধ্য জুনে লিগ পুনরায় শুরু করার ব্যপারে বেশ কয়েকজন শীর্ষ সারির ম্যানেজারও সন্দেহ পোষন করেছেন। বুধবার লিগ ম্যানেজার্স এসোসিয়েশনের সভায় তারা এ বিষয়ে নিজেদের মতামত দেন। কিন্তু মরিনহো জানিয়েছেন চ্যালেঞ্জ ও ঝুঁ’কি সত্তেও দীর্ঘদিন পর মাঠে ফিরে আসার সুযোগটা তিনি পুরোপুরি ভাবেই গ্রহণ করতে চান।

এ সম্পর্কে এক বিবৃতিতে মরিনহো বলেছেন, ‘আমি আর দেরি করার পক্ষে নই। আমি অনুশীলনে ফিরতে চাই, প্রিমিয়ার লিগ মাঠে গড়ানোর ব্যপারে মরি’য়া হয়ে আছি। তবে অবশ্যই সবকিছু স্বাস্থ্যবিধি মেনে। বিশেষ করে অন্যান্য লিগগুলো যেহেতু মাঠে চলে আসার দ্বারপ্রান্তে রয়েছে। সেজন্যই অপেক্ষাটা আর দীর্ঘ করতে চাচ্ছি না।’

এর আগে মধ্য এপ্রিলে ল’কডাউন রীতি ভেঙ্গে মিডফিল্ডার টানঙ্গা এডোম্বেলেকে নিয়ে পাবলিক পার্কে অনুশীলন করার বিষয়টি নিয়ে ক্ষমা চাইতে বাধ্য হয়েছিলেন মরিনহো।

টটেনহ্যাম জুটি সার্জি অরিয়ার ও মৌসা সিসোলোও সামাজিক দূরত্ব না মেনে একসাথে ট্রেনিং করার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছিলেন। এসব ঘটনা সত্তেও তার দল ল’কডাউনের মধ্যে যেভাবে নিজেদের ফিট রেখেছে তাতে দারুন সন্তুটি প্রকাশ করেছ মরিনহো।

‘দ্য স্পেশাল ওয়ান’ খ্যাত এই কোচ বলেছেন, ‘নিজেদের ফিটনেস ধরে রাখার জন্য খেলোয়াড়রা যেভাবে কষ্ট করেছে তাতে আমি তাদের নিয়ে গর্বিত। সত্যিকার অর্থেই তারা দারুন পোশাদারিত্ব দেখিয়েছে।

মূলত এই ধরনের পরিস্থিতিতেও আমরা একে অপরের সাথে যোগাযোগ রেখে ট্রেনিং চালু রেখেছিলাম। ট্রেনিং মাঠেও বিভিন্ন ধরনের নিয়ম মেনেই আমাদের কাজ করতে হবে। প্রতিটি খেলোয়াড় সেসব বিধি-নিষেধ মেনে চলতে অঙ্গীকারাবদ্ধ।’

সুত্রঃ কালের কন্ঠ

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন