স’ন্ত্রাসীদের দেয়া আগুনে পুড়ল কক্সবাজারের ২৬ বসতঘর

প্রকাশিত: মে ১৪, ২০২০ / ১০:৫১অপরাহ্ণ
স’ন্ত্রাসীদের দেয়া আগুনে পুড়ল কক্সবাজারের ২৬ বসতঘর

কক্সবাজারের চকরিয়ায় স’ন্ত্রা’সীদের দেয়া আগু’নে ২৬টি বসতঘর পু’ড়ে গেছে। এ ঘটনায় আগুনে পু’ড়ে ঘটনাস্থলে মা’রা গেছেন মনোয়ারা বেগম (৪৫) নামে এক নারী। গুরুতর আ’হ’ত হয়েছেন তার স্বামী মোজাহের আহমদ।

ঘটনার সময় স’ন্ত্রা’সীরা অর্ধশত রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে গৃহস্থের গরু-ছাগল, হাঁস-মুরগি, ঘরে থাকা ধান-চাল, নগদ টাকাসহ সব জিনিসপত্র লু’ট’পাট করে নিয়ে গেছে।

বৃহস্পতিবার ভোর ৫টার দিকে উপজেলার কৈয়ারবিল ইউনিয়নের খিলছাদেক এলাকায় ঘটেছে এ ঘটনা। পুলিশ ও পত্যক্ষদর্শীরা জানায়, এখানকার বাসিন্দারা মাতামুহুরী নদীর চরে নদী পয়েস্তী জমিতে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছেন।

এ সব নদী পয়েস্তী জমিতে গড়ে তোলা বসতভিটে জবরদখলের জন্য পার্শ্ববর্তী বরইতলী ইউনিয়নের গোবিন্দপুর পহরচাঁদা এলাকার ৪০-৫০ জন উচ্ছৃংখল লোক নদী পার হয়ে এসে স’শ’স্ত্র হা’ম’লা চালায়।

এ সময় স’ন্ত্রা’সীরা অর্ধশত রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে। অ’স্ত্রে’র মুখে ওইপাড়ার বাসিন্দাদের ঘরে ঘরে গিয়ে লু’ট’পাট চালায়। তারা ওইপাড়ার বাড়িঘর থেকে নগদ টাকা, ধান-চাল, গরু-ছাগল ও জিনিসপত্র লু’ট’পাট করে নিয়ে যায়।

পরে ঘরে ঘরে আ’গু’ন লাগিয়ে দিলে ২৬টি বসতঘর পুড়ে যায়। এ সময় আগুনে দগ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মা’রা যান মনোয়ারা বেগম (৪৫) নামের এক নারী।

এ ঘটনায় নি’হ’ত মনোয়ারা বেগমের স্বামী মোজাহের আহমদসহ অন্তত ১০ জন কম-বেশি আ’হ’ত হয়েছেন। এ ঘটনার পরপরই ঘটনাস্থলে ছুটে যান চকরিয়া-পেকুয়ার এমপি জাফর আলাম এমএ ও চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ শামশুল তাবরীজ।

সংসদ সদস্য জাফর আলম ক্ষতি’গ্র’স্ত পরিবারের মাঝ তাৎক্ষণিক খাদ্যসহ প্রয়োজনী সাহায্য-সহযোগিতা দিয়ে পুড়ে যাওয়া ঘরগুলো পুনঃনির্মাণ করে দেয়ারও আশ্বাস প্রদান করেন।

কৈয়ারবিল ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মক্কী ইকবাল হোসেন জানান, এ ঘটনায় কয়েক কোটি টাকার ক্ষ’য়’ক্ষতি হয়েছে।

এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার ওসি হাবিবুর রহমান জানান, নদী পয়েস্তী খাসজমি জব’র’দখল করার লক্ষ্যে একদল স’ন্ত্রা’সী এ ঘটনা ঘটিয়েছে। এ ঘটনায় যারাই জড়িত থাকুক ‘তাদেরকে খুঁজে বের করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

সুত্রঃ যুগান্তর

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন