একসঙ্গে ১০ ফসলের আবাদ করে চমক দিলেন কৃষক

প্রকাশিত: মে ১২, ২০২০ / ০১:০২অপরাহ্ণ
একসঙ্গে ১০ ফসলের আবাদ করে চমক দিলেন কৃষক

একসঙ্গে ১০ ফসলের আবাদ করে চমক সৃষ্টি করেছেন বঙ্গবন্ধু কৃষি পদকপ্রাপ্ত কৃষক আমীর হোসেন। চলমান করোনা পরিস্থিতিতে খাদ্য সংকটের চোখ রাঙানি মোকাবিলায় মডেল হতে পারে উত্তরের জনপদ গাইবান্ধার এ কৃষকের চাষাবাদ পদ্ধতি।

শুধু তাই নয়, এক সাথে একই জমিতে মাল্টা, আখ, লেবু, আদা, হলুদসহ ১০ ফসলের আবাদ করে সফল সাঘাটার কৃষক আমীর হোসেন। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণায় উজ্জীবিত হয়ে এ কৃষক বলেন, কৃষি জমির সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত হলে খাদ্যের জন্য হুমকি হবে না করোনা।

বঙ্গবন্ধু কৃষি পদকপ্রাপ্ত কৃষক আমীর হোসেন বলেন, জমি পতিত রাখলে আমরা বিপদে পড়ে যাব, আর না রাখলে করোনাকে মোকাবিলা করে বিশ্ববাসীর কাছে বাংলাদেশ মডেল হিসেবে পরিচিত পাবে।

বছরে ৪ লাখ মেট্রিক টন চাল উদ্বৃত্ত হলেও ৫৫ হাজার মেট্রিক টন শাক-সবজি এবং ৫৯ হাজার মেট্রিক টন ফলমূলের ঘাটতি গাইবান্ধায়।

করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় অন্যতম অবলম্বন হিসেবে কৃষি ব্যবস্থার অগ্রগতির জন্য ধানের পাশাপাশি বহুস্তর বিশিষ্ট ফল-ফসল চাষের পরামর্শ দেন কৃষিবিদ সাদেকুল ইসলাম গোলাপ।

তবে খাদ্য শস্যের মতো এবার শাক-সবজি ও ফলমুল উদ্বৃত্ত করার চ্যালেঞ্জ নিয়ে কাজ শুরু করা হয়েছে বলে জানান গাইবান্ধার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মাসুদুর রহমান।

জেলায় এক ফসলি জমির পরিমাণ ১৫ হাজার হেক্টর, দো-ফসলি ১ লাখ, তিন ফসলি ৩৯ হাজার ৭শ’ ১৭ ও চার ফসলি ২ হাজার হেক্টর।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন