সৌদিতে ভ্যাট বাড়লো তিনগুণ, ভাতা বন্ধ!

প্রকাশিত: মে ১২, ২০২০ / ১২:৪৫পূর্বাহ্ণ
সৌদিতে ভ্যাট বাড়লো তিনগুণ, ভাতা বন্ধ!

ক’রো’নার সং’ক্র’মণ ঠেকাতে ল’ক’ডাউন করা হয়েছে বিশ্বের অধিকাংশ দেশে। আর ল’ক’ডাউনের ফলে থমকে গেছে বিশ্ব অর্থনীতি। যার প্রভাব পড়েছে সৌদি আরবের অর্থনীতিতে।

অর্থনৈতিক চাপ সামলাতে সৌদি আরব নতুন পদক্ষেপ হিসেবে কর (ভ্যাট) তিনগুণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এছাড়া কর্মচারীদের বেতনের অতিরিক্ত দেয়া অর্থও অর্থাৎ কস্ট অভ লিভিং অ্যালাউন্স আপাতত বন্ধ রাখা হবে বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার।

সোমবার সৌদি প্রেস এজেন্সির (এসপিএ) বরাত দিয়ে বিষয়টি জানা যায়। এসপিএ জানিয়েছে, আগামী ১ জুলাই থেকে ভ্যাট ৫ শতাংশের স্থলে ১৫ শতাংশ করা হবে। আর ১ জুন থেকে বন্ধ করা হবে লিভিং অ্যালাউন্স।

এক বিবৃতিতে সৌদি অর্থমন্ত্রী মোহাম্মদ আল-জাদান বলেন, এই সময় পদক্ষেপগুলো নেয়া খুবই বেদনাদায়ক। কিন্তু মাঝারি থেকে দীর্ঘ মেয়াদে আর্থিক ও অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখার জন্য আপাতত এর বিকল্প নেই।

ক’রো’না মহামা’রিতে বিশ্বব্যাপী তেলের দাম কমে যাওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির সরকার। তিনি আরো জানান, আমাদের বাজেটের ব্যয় খুব দ্রুত হ্রাস করতে হবে। ব্যয় হ্রাস করার জন্য কিছু সরকারি প্রকল্প কমিয়ে দেয়া হতে পারে।

তেলের দাম কমে যাওয়ায় বছরের প্রথম তিন মাসে আয়ের তুলনায় ব্যয় অনেক বেশি হয়েছে দেশটির। এর ফলে ৯০০ কোটি ডলারের বাজেট ঘাটতিতে পড়তে যাচ্ছে সৌদি আরব।

এরপরই মূল্য সংযোজন কর বাড়ানোর ও লিভিং অ্যালাউন্স স্থগিত করার এই ঘোষণা দিয়েছে দেশটি। দেশটিতে তেলের দাম এক বছরে এক-চতুর্থাংশ কমে ৩ হাজার ৪০০ কোটিতে দাঁড়িয়েছে, যা মোট রাজস্ব আয়ের ২২ ভাগ।

এদিকে মার্চে দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংকে রিজার্ভের পরিমাণ কমে গেছে। গত দুই দশকের মধ্যে এটাই সবচেয়ে দ্রুত গতির হ্রাস। এমনকি ২০১১ সালে রিজার্ভের সর্বনিম্ন পরিমাণের চেয়েও তা কম।

উল্লেখ্য, সৌদি আরবে সর্বমোট ক’রো’না আ’ক্রা’ন্ত রোগীর সংখ্যা ৩৯ হাজার ৪৮ জন ও মৃ’ত্যুর সংখ্যা ২৪৬ জন। তবে এখন পর্যন্ত ১১ হাজার ৪৫৭ জন সুস্থ হয়েছে।

সূত্র : আরব নিউজ

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন