কোহলিকে নিয়ে রুবেলে বি’স্ফোরক মন্তব্য, ভারতে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

প্রকাশিত: মে ১০, ২০২০ / ০১:১২অপরাহ্ণ
কোহলিকে নিয়ে রুবেলে বি’স্ফোরক মন্তব্য, ভারতে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

অন্যান্য মানুষের মতো করোনা ভাইরাসের ছোবলে ঘরবন্দি ক্রিকেটারও। মানসিক শক্তি যোগাতে এবং একে অপরের খোঁজখবর নেয়া এখন ভিডিও কনফারেন্সই ভরসা।

প্রায় প্রতিদিনই টাইগার ক্রিকেটার আড্ডা দিচ্ছেন ফেসবুক লাইভে। সেখানে উঠে আসছে জানা অজানা নানা কথা ও গল্প। সম্প্রতি লাইভে যুক্ত হয়েছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের তিন মহাতারকা তামিম ইকবাল, মাশরাফি বিন মুর্তজা এবং রুবেল হোসেন।

সেখানে রুবেল ভারতীয় দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গে ব্যক্তিগত দ্বন্দ্ব নিয়ে একটি মন্তব্য করেন। যেটি নিয়ে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের ক্রিকেটভক্তদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রয়া দেখা দিয়েছে।

লাইভে বলেন, বিরাট কোহলির সঙ্গে তার সংঘাত দীর্ঘদিনের। বিরাট যখন ভারতীয় অনূর্ধ্ব-১৯ দলের খেলোয়ার ছিলেন সেই তখন থেকে। রুবেলও তখন বাংলাদেশ ১৯ দলের সদস্য ছিলেন।

বিরাট তখন অনাবশ্যক স্লেজিং করতেন। বিশ্রি গালিগালাজ করতেন। রুবেল তার প্রতিবাদ করায় বিরাট একবার তাঁর দিকে তেড়ে আসেন। আম্পায়ারের হস্তক্ষেপে ব্যাপারটি মিটে যায়।

রুবেলে দাবি, বিরাট কোহলি ভারতীয় সিনিয়র দলে আসার পর ব্যাপারটা (স্লেজিং) অনেকটা কমেছে। কিন্তু কমেনি তাদের সংঘাত। ২০১১ বিশ্বকাপে রুবেলদেরকে পরাজিত করে কাপ যেতেন কোহলিরা। কিন্তু ২০১৫ সালে ৩ রানে তিনি কোহলির স্ট্যাম্প ছিটকে দেন।

দেশের অন্যতম সেরা এই পেসারের মন্তব্য কলকাতার ক্রিকেট অনুরাগীদের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।

একদল ক্রিকেট অনুরাগী বলেন, স্লেজিং ক্রিকেটের অঙ্গ। রুবেল এর দ্বারা এত বিচলিত হয়েছিলেন কেন? তবে অন্য দলটির বক্তব্য, বিরাট ক্রিকেটার একজন আইকন। তার স্লেজিং এর ভাষা নির্বাচনে যত্নবান হওয়া প্রয়য়োজন ছিল।

অনেকে বলছেন, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় – শোয়েব আখতারের মধ্যেও তো সংঘাত ছিল। তার জন্যে দুইজনকে তো অশোভন হতে হয়নি। বরং ভারতীয় দল পেশোয়ায় গেলে সেবার নিজের হাতে করে সৌরভের জন্য কাবলি চপ্পল নিয়ে আসতেন উপহার হিসেবে।

ফেসবুক দর্শকদের বক্তব্য, প্রথম সুযোগেই বিরোধ মিটিয়ে নিন বিরাট–রুবেল। প্রতিষ্ঠিত হোক ভারত – বাংলাদেশ মৈত্রী।

সূত্র : ব্রেকিংনিউজ

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন