কুমিরের দেখা মিলল গঙ্গায়!

প্রকাশিত: মে ৯, ২০২০ / ০৬:২০অপরাহ্ণ
কুমিরের দেখা মিলল গঙ্গায়!

ফারাক্কায় আগে দেখা মিলতো ইলিশের। সে ইলিশের বেশ ভালো স্বাদ-গন্ধ থাকায় তার চাহিদাও ভালো ছিল। এখনও সেই ইলিশ মেলে কোনও কোনও সময়। কিন্তু তাই বলে কুমির?

এর আগেও বেশ কয়েকবার তাঁর অস্তিত্ব নিয়ে দাবি করেছিলেন স্থানীয় মৎস্যজীবিরা। কিন্তু কোনোবারই সেই দাবি মানেনি ফারাক্কা ব্যারেজ কর্তৃপক্ষ। তার একটা বড় কারণ ছিল তার ছবিও কেউ কোনো দিন তুলতে পারেনি।

কিন্তু এই ল’ক’ডাউনের জেরে যখন গঙ্গার চর পুরো ফাঁকা, ব্রিজের ওপর দিয়ে চলছে না কোনও যানবাহন তখন বেশ মনের সুখে ডাঙায় উঠে রোদ পোহাতে গিয়ে নিজেকে দেখিয়ে ফেললেন স্থানীয়দের কাছে। আর যায় কোথায় ফটাফট উঠতে শুরু করল ছবি।

তারপর তিনি ফের সরসর করে নেমে গেলেন গঙ্গার জলে। দিলেন গা ঢাকা। তিনি অবশ্য কোনও মানুষ নন। তিনি একটি পূর্ণবয়স্ক কুমির। শনিবার বেলা ১২টা নাগাদ তার দেখা পেল স্থানীয় কিছু যুবক। মুর্শিদাবাদ ও মালদা জেলার মাঝে ফারাক্কা বাঁধের দক্ষিণ দিকে।

ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে থাকা সুন্দরবনে কুমির রয়েছে আর তা বেশ ভালো পরিমাণেই। খাবারের সন্ধানে এরা মাঝেমধ্যেই সুন্দরবন লাগোয়া গ্রামের খাঁড়িগুলিতে চলে আসে।

সেই সব খাঁড়িতে মাছ বা গুগলি ধরতে গিয়ে প্রতিবছর কুমিরের হাতে মারা পড়েব দুই বাংলার বেশ কিছু মানুষ। কিন্তু চিরাচরিতভাবে কুমির নোনাজল ছেড়ে চট করে মিঠা জলে যেতে চায় না, অন্তত গাঙ্গেয় কুমিরগুলি।

কিন্তু ফারাক্কায় এদিন যে কুমির দেখা গেছে তার মূল নিবাস হতে পারে সুন্দরবন। কোনোভাবে সে চলে এসেছে গঙ্গার স্রোত বেয়ে। ফারাক্কায় এসে আর এগোতে না পারায় এখানেই বছরের পর বছর সে রয়ে গিয়েছে। এর আগে ফরাক্কায় যারা মাছ ধরে তাঁরা এই দেখা পেলেও ছবি তুলতে পারেনি। কিন্তু এবার সেই ছবি ক্যামেরাবন্দি হলো।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন