আল্লাহর ঘর মসজিদ কোনো অবস্থাতেই বন্ধ রাখা যায় না: বাবুনগরী

প্রকাশিত: মে ৬, ২০২০ / ১১:৩২অপরাহ্ণ
আল্লাহর ঘর মসজিদ কোনো অবস্থাতেই বন্ধ রাখা যায় না: বাবুনগরী

পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ, তারাবি ও জুমা ও ইতেকাফের জন্য মসজিদ খুলে দেয়ায় সরকারসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে মোবারকবাদ জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব ও হাটহাজারী মাদ্রাসার সহযোগী পরিচালক আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।

বুধবার রাতে সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে আল্লামা বাবুনগরী বলেন, মসজিদ মহান আল্লাহ তায়ালার ঘর। পরকালের বাজার, বেহেশতের বাগান। রহমত, বরকতের পবিত্রময় স্থান। পৃথিবীর সর্বোৎকৃষ্ট শান্তি ও নিরাপত্তার জায়গা মসজিদ। মুসলমান মসজিদে গেলে প্রশান্তি লাভ করেন। কোনো অবস্থাতেই মসজিদ বন্ধ রাখা যায় না।

তিনি বলেন, করো’না’ভা’ই’রাসের কারণে মসজিদ বন্ধের বিষয়টি আলোচনায় আসার পর থেকেই আমি মসজিদ খোলা রাখার কথা বলে আসছিলাম।

স্বাস্থ্য সচেতনতা বজায় রেখে সুস্থ ব্যক্তিদের জন্য মসজিদ খোলা রাখা ও জুমার নামাজের জন্য দাবি জানিয়ে এ বিষয়ে সংবাদমাধ্যমে আমি একাধিক বিবৃতিও দিয়েছিলাম। অবশেষে দীর্ঘদিন মসজিদ বন্ধ থাকার পর উন্মুক্ত করে দেয়ায় সরকার, ধর্ম মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক মোবারকবাদ জানাচ্ছি।

আল্লামা বাবুনগরী আরও বলেন, পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ, তারাবি ও জুমার জন্য যেভাবে মসজিদ উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে আমরা সরকারের নিকট আশা করব ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের সঙ্গে ঈদের নামাজ পড়ার জন্য জাতীয় ঈদগাহসহ দেশের সকল ঈদগাহে নামাজ আদায়ের সুব্যবস্থা করে দেবে।

তিনি বলেন, হাদিস শরিফে আছে, মহানবী (স.) কোনো আজাব-গজব দেখলে সঙ্গে সঙ্গে মসজিদে যেতেন। করোনার এই নাজুক পরিস্থিতিতে আমাদেরও উচিত বেশি বেশি মসজিদে গিয়ে আল্লাহর তায়ালার নিকট কান্নাকাটি করে এই গজব থেকে পানাহ চাওয়া। এখন থেকে নিয়মিত পাঞ্জেগানা, জুমা ও তারাবিতে আমরা উপস্থিত হব।

বাবুনগরী বলেন, পবিত্র কোরআনের সঙ্গে রমজানের সম্পর্ক অবিচ্ছেদ্য। এ মাসে কোরআনের চর্চা হয়, তিলাওয়াত হয় এবং দেশের হাজার মসজিদে তারাবি নামাজে কোরআন খতম করা হয়। পবিত্র কুরআনের আলোকে জীবন গঠনের একটা প্রশিক্ষণ হয় মাহে রমজানে। তারাবির নামাজে কোরআনুল কারিমের তিলাওয়াতের যেই পরিবেশ রমজান মাসে হয়, তা বছরজুড়ে হয় না।

করো’না’ভা’ইরাসের কারণে মসজিদ বন্ধ থাকায় যেসব মসজিদে সুরা তারাবি বা খতমে তারাবির আয়োজন করা হয়নি রমজানের বাকি দিনগুলোতে সেখানে তারাবির আয়োজন করে ইবাদাত বন্দেগির মধ্যে কাটানোর আহ্বান জানান তিনি।

সুত্রঃ যুগান্তর

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন