এটিএম বুথ দিয়ে গরীবদের চাল দিচ্ছে ভিয়েতনাম

প্রকাশিত: এপ্রি ২৬, ২০২০ / ০৯:০৩অপরাহ্ণ
এটিএম বুথ দিয়ে গরীবদের চাল দিচ্ছে ভিয়েতনাম

বৈশ্বিক মহা’মা’রি ক’রো’না ভা’ই’রাস মো’কা’বেলায় বিশ্বের প্রায় দেশেই ল’ক’ডাউন বা কা’র’ফি’উ জা’রি করা হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে থ’ম’কে গেছে বিশ্ব অর্থনীতি। ফলে সং’ক’টা’পন্ন জীবন-যাপন করছেন খেটে খাওয়া মানুষগুলো।

মহা’মা’রিতে এখনও কোনো প্রা’ণ’হানি ঘটেনি সমাজতান্ত্রিক দেশ ভিয়েতনামে। কিন্তু জনজীবনে স্থবিরতা নেমে আসায় আরও অনেক দেশের মানুষের মতো ভিয়েতনামেও অনেক মানুষ অর্ধা’হা’রে, অনা’হা’রে আছে।

তাদের জন্য এটিএম বুথের মতো এক বিশেষ চালের মেশিন চালু করা হয়েছে। ২৪ ঘণ্টাই চাল পাওয়া যায় সেই মেশিন থেকে। এটিএম মেশিন থেকে যেমন কোড দেয়ার পর টাকা পাওয়া যায়, ঠিক সেভাবে বাটন টিপলে দেড় কেজি করে চাল পাওয়া যাবে এই মেশিনটিতে।

এটিকে ‘চালের এটিএম’ বলতে চান উদ্যোক্তা হুয়াং তুয়ান আন। ক’রো’না সং’ক’টে কাজ হারানো গ’রিবদের জন্যই তার এই উদ্যোগ। ভিয়েতনামে ক’রো’না ভা’ই’রাস এখনো বড় সং’ক’ট তৈরি করেনি।

দেশটিতে এ পর্যন্ত ২৬২ জনের দেহে সং’ক্র’ম’ণ ধরা পড়লেও কারো মৃ’ত্যু’র খবর পাওয়া যায়নি। গত ৩১ মার্চ থেকে সেখানে ল’ক’ডাউন চলছে। এর ফলে, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী, দিনমজুর, গৃহকর্মী বা লটারির টিকেট বিক্রেতার মতো স্বল্প আয়ের মানুষেরা পড়েছেন বি’পদে।

প্রথমে অবশ্য শুধু হো চি মিন শহরে হুয়াং তুয়ান আন উদ্ভাবিত চালের এটিএমটি স্থাপন করা হয়েছিল। এখন হ্যানয়, হু এবং দানাং-এর মতো বড় শহরের গরীব মানুষেরাও পাচ্ছেন মেশিন থেকে চাল নেয়ার সুবিধা।

পরিবারের সদস্যদের মুখে তিন বেলা খাবার তুলে দিতে হিমশিম খাচ্ছিলেন যারা, তাদের জীবনে কিছুটা হলেও স্বস্তি ফিরেছে। এমন ব্যক্তিক্রমী উদ্যোগ প্রশংসিতও হচ্ছে।

সুত্রঃ ইত্তেফাক

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন