ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা আল্লাহর ওপর ভরসা রেখে হজ নিবন্ধন করে যাচ্ছেন

প্রকাশিত: মার্চ ৩০, ২০২০ / ০৩:১৬পূর্বাহ্ণ
ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা আল্লাহর ওপর ভরসা রেখে হজ নিবন্ধন করে যাচ্ছেন

করোনা আতঙ্ক প্রেক্ষাপটে চলতি বছর হজ পালন নিয়ে অনিশ্চয়তা থাকলেও দেশের ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা আল্লাহর ওপর ভরসা রেখে নিবন্ধন করে যাচ্ছেন।

আতঙ্কের মধ্যেও দেশে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের পবিত্র হজ পালনের আগ্রহে ভাটা পড়েনি। বর্তমান দুর্যোগময় সময়েও পবিত্র হজ পালনের লক্ষ্যে ব্যাংকে টাকা জমা দেয়ার মাধ্যমে নিবন্ধন কার্যক্রম সম্পন্ন করছেন তারা।

রোববার সীমিত সময়ের জন্য ব্যাংক খুললেও এ সময়ের মধ্যে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৩৩৭ জন ও সরকারি ব্যবস্থাপনায় দুজন হজ গমনেচ্ছু নিবন্ধন করেছেন। এ নিয়ে সরকারি ব্যবস্থাপনায় তিন হাজার ৩৬১ জন ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৩৮ হাজার ৮৩২ জন নিবন্ধন করলেন।

সৌদি সরকারের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী চলতি বছর সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১৭ হাজার ১৯৮ জন ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় এক লাখ ২০ হাজার বাংলাদেশির পবিত্র হজ পালনের কথা রয়েছে।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুসারে প্রথমে ১৫ মার্চ ও পরে ২৫ মার্চ পর্যন্ত হজ নিবন্ধনের সময়সীমা বেঁধে দেয়া হয়েছিল। কিন্তু বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস আতঙ্কের কারণে হজ নিবন্ধনে কাঙ্ক্ষিত সাড়া না পাওয়ায় সময়সীমা আগামী ৮ এপ্রিল পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়।

সৌদি আরবও ইতোমধ্যে করোনা সংক্রমিত হয়েছে। বর্তমানে সৌদির সঙ্গে আকাশপথে বাংলাদেশের যোগাযোগ বন্ধ।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, তথ্যপ্রযুক্তির কল্যাণে অনলাইনের মাধ্যমে ঘরে বসেই তারা এজেন্সির মাধ্যমে টাকা জমা দিতে পারছেন।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহ সম্প্রতি গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে হজ গমনেচ্ছুদের নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নিবন্ধন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে অনুরোধ জানিয়েছেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন