করোনাভাইরাস নিয়ে গুজব ছড়িয়ে মানিকগঞ্জের প্রকৌশলী গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: মার্চ ২২, ২০২০ / ১২:২৩পূর্বাহ্ণ
করোনাভাইরাস নিয়ে গুজব ছড়িয়ে মানিকগঞ্জের প্রকৌশলী গ্রেপ্তার

করোনাভাইরাস নিয়ে ফেসবুকে গুজব ছড়িয়ে আতঙ্ক সৃষ্টির অপরাধে মানিকগঞ্জে এক প্রকৌশলীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ইঞ্জিনিয়ার সাদ্দাম হোসেন অভি মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ মানিকগঞ্জ জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্বপালন করছেন। আটকের পর তিনি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

সূত্র জানায়, সাদ্দাম হোসেন অভি মানিকগঞ্জ জেলার দৌলতপুর উপজেলার বাচামারা চরখন্ড গ্রামের নওশের আলম মাষ্টারের ছেলে। সাদ্দাম হোসেন দৌলতপুর উপজেলা প্রকৌশলী সমিতির সহ-সভাপতি।

তিনি যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রাসায়নিক প্রকৌশলীতে বিএসসি পাশ করেন। শিক্ষাজীবনে তিনি ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মসিয়ূর রহমান হল শাখা ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদক ছিলেন। রাসায়নিক প্রকৌশল বিভাগ ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্বও পালন করেছেন।

ফেসবুকে করোনাভাইরাস নিয়ে মিথ্যা প্রচারনার দায়ে ইঞ্জিনিয়ার সাদ্দাম হোসেন অভিকে আটক করে পুলিশ। পরে তাকে শনিবার সন্ধ্যায় আদালতে হাজির করা হলে তিনি বিচারকের কাছে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

মানিকগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) মো. হাফিজুর রহমান জানান, শুক্রবার সকাল ১১টা ২৩ মিনিটে সাদ্দাম হোসেন অভি তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে একটি মিথ্যা তথ্যসহ স্ট্যাটাস দেন। তিনি ‘করোনায় আক্রান্ত হয়ে মানিকগঞ্জের মুন্নু মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ১ জনের মৃত্যু ও ৩ জনকে ঢাকায় স্থানান্তর’ লিখে গুজব ছড়িয়ে দেন।

এটি পুলিশে নজরে আসার পর অভিযান শুরু হয়। সন্ধ্যায় বাচামারা বাজার থেকে তাকে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি নিজের অপরাধ স্বীকার করে নেন। পরে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

সাদ্দাম হোসেন অভির বিরুদ্ধে শনিবার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২০১৮ এর ২৫ (খ)(২)/৩১ ধারায় মামলা করা হয়েছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন