মা’দকের টাকা না পেয়ে নামাজরত মাকে কু’পিয়ে হ’ত্যা

প্রকাশিত: মার্চ ২০, ২০২০ / ১১:১০অপরাহ্ণ
মা’দকের টাকা না পেয়ে নামাজরত মাকে কু’পিয়ে হ’ত্যা

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে মা’দকের টাকা না পেয়ে নামাজরত নিজের গর্ভধারিণী মাকে কুঠার দিয়ে কু’পিয়ে হ’ত্যা করেছে মা’দকাসক্ত ছেলে।

শুক্রবার দুপুরে উপজেলার উমর মজিদ ইউনিয়নের উমর পান্থাবাড়ী সাতভিটা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মিনু বেগম (৬০) ওই গ্রামের সোলায়মান আলীর প্রথম স্ত্রী।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, শুক্রবার মিনু বেগমের নিকট তার ছেলে মনতাজুল ইসলাম (৩৫) মা’দ’ক কেনার জন্য কিছু টাকা চায়। মাদ’কে’র টাকা দিতে অস্বীকার করলে ওই দিন দুপুরে জোহরের নামাজ আদায় করার সময় ঘরে রাখা কুঠার দিয়ে নামাজ আদায়রত মাকে গলাসহ কয়েক জায়গায় আ’ঘা’ত করে।

এ সময় প্রচুর র’ক্ত’ক্ষরণে মিনু বেগম গু’রু’তর আহত হয়ে মাটিতে লু’টিয়ে পড়েন। শব্দ শুনে প্রতিবেশী মোখছেদুল ইসলামের স্ত্রী মুন্নী বেগম ছুটে আসলে ঘা’ত’ক মনতাজুল পালানোর চেষ্টা করে।

কিন্তু মিনু বেগমের রক্তাক্ত নিথর দেহ দেখে চিৎ’কা’র দিলে এলাকাবাসীরা ছুটে এসে ঘা’ত’ককে আ’ট’ক করে।

খবর পেয়ে রাজারহাট থানার ওসি কৃষ্ণ কুমার সরকার ও ওসি তদন্ত পবিত্র কুমার রায়ের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লা’শ উ’দ্ধা’র করে ম’য়’নাতদন্তের জন্য কুড়িগ্রাম প্রেরণ করে।

এ সময় এলাকাবাসীরা ঘা’ত’ক মনতাজুল ইসলামকে পুলিশে সোপর্দ করে।

রাজারহাট থানার ওসি কৃষ্ণ কুমার সরকার জানান, মা’দ’কাসক্ত মায়ের খুনি’কে গ্রে’ফ’তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় রাজারহাট থানায় একটি হত্যা মা’ম’লা দায়ের হয়েছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন